1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শার্শায় নিখোঁজের এক দিন পর বেতনা নদী থেকে নাসির মোল্লার মরদেহ উদ্ধার মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিগাঁথা ৬ ডিসেম্বর: ঐতিহাসিক দেবহাটা মুক্ত দিবস আছাদুল হককে জেলা থ্রি-হুইলার মালিক সমিতির ফুলেল শুভেচ্ছা দেবহাটায় ভূমিহীন কৃষক নেতা সাইফুল্লাহ লস্করের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি রবিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন চেয়ারম্যান আজমল উদ্দীন নরসিংদী রায়পুরায় ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে গেলো ইজিবাইক, চালক নিহত পাইকগাছায় সামাজিক জবাবদিহিতা মূল স্রোতধারাকরণ বিষয়ক অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় অটো রাইসমিলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড; কোটি টাকার ক্ষতি সদর উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনি’র ৮৩তম জন্মবার্ষিকী পালন সাতক্ষীরায় আল-আরাফাহ্ধসঢ়; ইসলামী ব্যাংক লি: এর উদ্যোগে মানি লন্ডারিং এবং সন্ত্রাসে অর্থায়ণ প্রতিরোধ বিষয়ক দিন ব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মশালা

পশ্চিমবঙ্গে ছয় বাংলাদেশি গ্রেফতার

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭০ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশের হুগলি জেলায় অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন ছয় বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত রাতে কলকাতার ব্যান্ডেলের গ্রিন পার্ক আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছে হুগলি জেলা পুলিশ। শনিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইউনাইটেড নিউজ অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হুগলির এক আবাসিক ভবন থেকে ছয় বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করেছে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ভারতীয় আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ভোটার কার্ড ও বাংলাদেশি মোবাইল কোম্পানির সিম পাওয়া যায়।



হুগলির চিনসুরাহ পুলিশ বলেছে, ব্যান্ডেলের গ্রিন পার্ক এলাকার এক ভাড়া বাসায় থাকতেন ওই ছয় বাংলাদেশি। পুলিশ ওই ভবনের মালিককে শনাক্ত করেছে। তিনি উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হালিশহর এলাকায় বসবাস করেন। গ্রেফতারকৃতরা বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলার বাসিন্দা। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার বলছে, গ্রিনপার্কের যে বাসায় গ্রেফতারকৃতরা থাকতেন, সেটি আকাশ দাস নামে এক ভারতীয়র। আকাশ দাস কোনও চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারেন বলে ধারণা করছেন দেশটির গোয়েন্দারা।



তারা বলছেন, সেই চক্র বাংলাদেশের নাগরিকদের অনুপ্রবেশ করিয়ে ভারতীয় নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র প্রস্তুত করে দেয়। ভোটার কার্ড দেখিয়ে পাসপোর্টও তৈরি করে এই চক্র। তারপর পশ্চিম এশিয়ার কোনও দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয় তাদের।



এ জন্য জন্ম সনদপত্রেরও ব্যবস্থা করে দেন আকাশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা বলেছেন, এর আগে আকাশের নেতৃত্বাধীন চক্র আরও কয়েকজন বাংলাদেশি নাগরিককে বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে। প্রাথমিক তদন্তের পর ভারতীয় গোয়েন্দারা বলছেন, কাজের জন্য বাংলাদেশি নাগরিকরা এই চক্রের কাছে আসেন। গ্রেফতারকৃত ছয় বাংলাদেশিকে শনিবার চিনশুরার স্থানীয় এক আদালতে তোলা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ