1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাশেমপুরে মাদানী জামে মসজিদের ছাদ ঢালাইয়ের উদ্বোধন দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকার সম্পাদকের সহধর্মীনির অকাল মৃত্যুতে সাতক্ষীরা সাংবাদিক ইউনিয়নের শোক কলারোয়ার যুগিখালীতে ৪র্থ বার বিনা প্রতিন্দীতায় নির্বাচিত ইউপি সদস্য মফিজুল ইসলাম দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকার সম্পাদকের সহধর্মীনির অকাল মৃত্যুতে এমপি রবি’র শোক ছোট ভাইকে উদ্ধারের দাবীতে বড় ভাইয়ের সংবাদ সম্মেলন সাতক্ষীরায় ওর্য়াড পুলিশিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত দেবহাটা প্রেসক্লাবের বার্ষিক সভায় বর্তমান কমিটির মেয়াদ বর্ধিত; সদস্য অন্তর্ভূক্তির লক্ষ্যে উপ-কমিটি খলিশাখালি দখলের এক সপ্তাহ; জমি পুনরুদ্ধারে দখলচ্যুত মালিকদের সংবাদ সম্মেলন জেলা আলীগের সাধারন সম্পদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের সাথে সাংবাদিক ইউনিয়নের শুভেচ্ছা বিনিময় খলিশাখালিতে প্রতিবাদ সমাবেশ, প্রশাসনের সহযোগীতা চান ভূমিহীনরা

নরসিংদীতে রিক্সাচালকের করুণ কাহিনী শুনে আর্থিক অনুদান প্রদান

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৩ বার পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি: নরসিংদীতে করোনাকালীন সময়ে চারদিকে হাহাকার চলছে। শ্রমিক, রিক্সাচালকসহ মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো বর্তমানে খুবই অসহায়ভাবে জীবন যাপন করছে। কিন্তু থেমে নেই বেসরকারি এনজিওগুলো। আজ ১লা আগষ্ট ২০২১ ইং রোজ রবিবার দুপুর অনুমান ২ ঘটিকার সময় এমনই এক রিক্সাচালক জাহিদ মিয়ার সাথে সংবাদকর্মী সাইফুল ইসলাম রুদ্রের সংবাদ কালেকশন করতে গিয়ে দেখা হয়।
এ সময় রিক্সাচালক জাহিদ সংবাদকর্মী রুদ্রকে বলেন, আমি বর্তমানে খুবই খারাপ অবস্থায় আছি। বর্তমান পরিস্থিতে ভালো করে রিক্সার ভাড়াই তুলতে পারি না তার উপর বিরাট সংসারসহ নিজের খরচ। দেশের ভয়াবহ লকডাউনের কারণে বর্তমানে কাজের অবস্থা খুবই খারাপ। অথচ আমার সংসারে ৪ টি সন্তান। আমার সংসারে প্রতিদিন নি¤েœ ৩শত থেকে ৪শত টাকা খরচ আছে। কিন্তু আমি রিক্সা ভাড়া দিয়ে হাতে তেমন টাকা থাকে না। গত ৪ দিন যাবৎ আমার অবস্থাটা এতটাই খারাপ যে, আমি ঘরে ঠিকভাবে চাউল নিতে পারছি না। যার ফলে আমার সংসারে দুঃখের ছায়া বয়ছে। আমার ছোট ছেলে নাইমের দুধ কেনার টাকাও এখন আমার কাছে নেই। রিক্সাওয়ালার এমন হৃদয় বিদারক কথা শুনে সংবাদ কর্মী রুদ্র আবেগে আবøুত হয়ে তাকে সামর্থ্য অনুযায়ী ১ হাজার টাকা আর্থিক অনুদান দেন। এই টাকা পেয়ে রিক্সাওয়ালা জাহিদ কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং সংবাদকর্মী রুদ্রকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন।
এসময় আরো কয়েকজন রিক্সাচালক একত্রিত হয়ে সংবাদকর্মী রুদ্র এর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনার চেয়ে অনেক বিত্তবান লোকদের আমরা প্রতিদিন আনা নেওয়া করি। কিন্তু তারা আমাদের একটা মুখের কথাও বলে না। উল্টো আমাদের গালাগালিজ করে। কিন্তু আজকে আপনি আমাদের এক ভাইকে সহযোগিতা করেছেন তা দেখে সত্যিই আমাদের অনেক ভালো লাগছে এবং আপনার জন্য মন শুভ কামনা এবং দোয়া আসছে।
এসময় সংবাদকর্মী রুদ্র সকলের বলেন, মাক্স পরি, জীবন বাঁচাই। করোনার এই মহামারিতে নরসিংদীতে অনেক রিক্সাওয়ালা আছেন যারা আর্থিক সংকটের কারণে কষ্টে জীবনযাপন করছেন। তাদের কষ্ট কিছুটা লাঘবের জন্য আমি নিজে উদ্যোগ নিয়ে সামর্থ অনযায়ী তাদের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। সকলের উদ্দেশ্যে আমার আহŸান, আপনারা যারা একটু অর্থশালী আছেন, দয়া করে একটু গরীবদের পাশে দাঁড়ান। এ সময় তিনি আরো বলেন, জীবনের ঝুঁকি না নিয়ে মাক্স পরিধানসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সকলে চলাফেলা করুন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ