1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১২:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বজুড়ে ডেল্টার ঢেউ: বিভিন্ন দেশে রেকর্ড সংক্রমণ প্রশংসা পাচ্ছে অপূর্ব-মেহজাবিনের ‘অন্য এক প্রেম’ কিছু বিদেশি গণমাধ্যম দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে ভুল সংবাদ দেয় আশাশুনিতে সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ সদস্য সাজাপ্রাপ্ত আসামী দেলোয়ার গ্রেপ্তার দেবহাটায় নেট-পাটা অপসারণে ইউএনও’র অভিযান, জরিমানা শার্শায় এক সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ সাতক্ষীরা সামেক হাসপাতালে ইন্টার্ন ডাক্তারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি রবি ভারী বর্ষণে প্লাবিত জনগণের পাশে সোহেল বাল্য বিবাহ; ছেলে, বর-কনের অভিভাবক ও পুরোহিতকে জরিমানা কপিলমুনিতে জনসম্মুখে টানানো হলো ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীদের নামের তালিকা

ছাত্রলীগের সম্পাদকের বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তা দখলের অভিযোগ উঠেছে

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১
  • ১৬৭ বার পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশ উপজেলার চরনগরদী বাজার এলাকায় সরকারি রেকর্ডভুক্ত রাস্তা দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে পলাশ উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আপেল মাহমুদ শাহীন, পিতা: সুলতান এর বিরুদ্ধে। তবে স্থাপনা নির্মাণ না করার জন্য অনেক ব্যবসায়ী অনুরোধ জানিয়েছেন বলে তথ্য পাওয়া গেছে। কিন্তু ছাত্রলীগের এই নেতা কারো অনুরোধ না রেখে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে প্রতিনিয়ত চালিয়ে যাচ্ছে স্থাপনার কাজ।



এদিকে পারুলিয়া থেকে আসা এক সিএনজি চালক আলাল মিয়া অভিযোগ করে বলেন, এই ছাত্রীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমাদেরকে বহুদিন ধরে জ্বালিয়ে আসছে। সম্প্রীতি সময় চরনগরদী বাজারের প্রধান সরকারি রাস্তা দখল করে স্থায়ী স্থাপনা নির্মাণ করার অসৎ উদ্দেশ্যে প্রতিনিয়ত স্থাপনার কাজ চলমান রাখছে বলে অভিযোগ উঠেছে এই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে।



খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই রাস্তা দিয়েই যাতায়ত করে যানবাহন সহ সাধারণ পথচারীরা। কিন্তু এই গুরুত্বপূর্ণ জনবহুল রাস্তাটি বেদখল করে স্থাপনা নির্মাণে মত্ত হয়েছে পলাশের ছাত্রলীগের সাবেক নেতা।



এটি সরকারি রেকর্ডভুক্ত একটি রাস্তা। সম্প্রতি রাস্তাটির অবস্থা খুবই খারাপ করে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই রাস্তায় ইট, বালি, রড, সিমেন্ট রেখে যানবাহন সহ জনসাধারণকে দুর্ভোগে ফেলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাই এই এলাকার মানুষ বর্তমানে অতিষ্ট হয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করছেন।



এদিকে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বলেন, ‘এই রাস্তাটি যেহেতু মহাসড়কের আওতাভূক্ত সেহেতু এটি আমরা সাথে সাথে ব্যবস্থা নিতে পারিনি। আইনী কিছু জটিলতার কারণে। যেহেতু আপনি এসেছেন তাই আমি কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়ে অবশ্যই অবগত করব। অভিযোগের সত্যতা সঠিক ভাবে প্রমাণিত হলে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



এই দিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আপেল মাহমুদ শাহীন কে এই বিষয়ে সংবাদ কর্মী সাইফুল ইসলাম রুদ্র কে মোবাইল ফোনে জানান যে, অনেকেই সরকারি রাস্তা দখল করে ভোগ করছে আমি করলে দোষ কি? কিন্তু সড়ক পরিবহন অফিস থেকে এ বিষয়ে আমি কোন অনুমোদন নেয়নি। আমি আপনার সাথে পরবর্তীতে সাক্ষাৎ করব।



নরসিংদী জেলা সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ সংবাদ কর্মী রুদ্রকে বলেন, এ বিষয়ে আমরা সঠিক তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নিব প্রকৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে। সরকারি জায়গা আমরা কাউকে দিবো না। সরকারের রেকর্ডভুক্ত রাস্তায় কোন কিছু নির্মাণ করলে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ