1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০২:৩৪ অপরাহ্ন

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ; প্রার্থীসহ আহত ২০; আটক ৪

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৭ মার্চ, ২০২১
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘাত ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রার্থীসহ দু’পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।



শনিবার সকাল ১০টার দিকে ইউনিয়নের বেতবুনিয়া মাদ্রাসা মোড় এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, এসিল্যান্ড, ওসি, ডিবির ওসি ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।



পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে আটক করেছে। জানাগেছে, আগামী ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য সোলাদানা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছে আওয়ামীলীগ নেতা ও সদ্য সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল মান্নান গাজী।



অপরদিকে আনারস প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছে উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হক। এলাকাবাসীর সুত্রমতে অত্র ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী থাকলেও মুল প্রতিদ্বন্ধিতা হবে এসএম এনামুল হক ও আব্দুল মান্নান গাজীর মধ্যে। যার ফলে নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে নিজেদের শক্তিশালী অবস্থান ধরে রাখতে দু’প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা নির্বাচনী মাঠে প্রাণপন চেষ্ঠা করছেন।



শনিবার সকাল ১০টার দিকে বেতবুনিয়া মাদ্রাসা মোড় এলাকায় দু’প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা সমবেত হলে সংঘাত ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজী জানান-আমার কর্মী সমর্থকরা আগে থেকেই বেতবুনিয়া মাদ্রাসা মোড় এলাকায় অবস্থান করছিলো, হঠাৎ আনারস প্রতিকের প্রার্থী এসএম এনামুল হক তার লোকজন নিয়ে আমার কর্মী সমর্থকদের উপর হামলা করে। এতে আফজাল হোসেন, রবিউল ইসলাম, সালাউদ্দিন, রমজান সরদার, মুসা, আব্দুস সাত্তার, ফিরোজ, বারিক, আতিয়ার, নূর ইসলাম, ইয়াছিন ও নেছারসহ কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ জন কর্মী আহত হয়।



খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। তা না হলে আমাদের অনেকের প্রাণহানী ঘটতে পারতো। অপরদিকে আনারস প্রতিকের প্রার্থী এসএম এনামুল হকের কর্মী টেংরামারি এলাকার সুশংকর মন্ডল জানান প্রার্থী এনামুল হককে নিয়ে আমরা বেতবুনিয়া মাদ্রাসা মোড় এলাকায় পোষ্টার লাগাতে গিয়েছিলাম এসময় ওখানে অবস্থানরত নৌকা প্রতিকের কর্মী সমর্থকরা আমাদের উপর চড়াও হয়ে মারপিট শুরু করে। এতে আমাদের প্রার্থী এনামুল হক আমি সুশংকর মন্ডল, কালিপদ মন্ডল, কিশোর ও সুকৃতিসহ কয়েকজন আহত হয়।



এ ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী, এসিল্যান্ড শাহরিয়ার হক, ওসি এজাজ শফি ও ডিবি ওসি আমিনুল ইসলামসহ থানা ও ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থলে লোকজনকে ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। দুপুর দেড় টার দিকে ইউপি চেয়ারম্যান এসএম এনামুল হককে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় নেয়া হয়। এ ব্যাপারে ওসি (তদন্ত) আশরাফুল আলম জানান প্রশাসন ও পুলিশ যৌথভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে প্রাথমিকভাবে ৪ জনকে আটক করার কথা জানান থানা পুলিশের এ কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ