1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৫:১০ পূর্বাহ্ন

আলমশাহ পাড়া কামিল মাদ্রাসায় গণহত্যার স্মৃতিচারণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১
  • ৭২ বার পড়া হয়েছে
এম. মতিন, চট্টগ্রাম : ২৫ শে মার্চের গণহত্যার স্মৃতিচারণ ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে রাঙ্গুনিয়া আলমশাহ পাড়া কামিল (এম এ) মাদ্রাসার উদ্যোগে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।



আজ বৃহস্প্রতিবার (২৫ মার্চ) সকাল ১১ টায় মাদ্রাসার মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।  মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মীর মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে ও মাস্টার খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায়  প্রধান অতিথি ছিলেন মাদ্রাসার গভর্নিংবডির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও উপজেলা আ. লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন তালুকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযুদ্ধো ও ইউনিয়ন আ. লীগ সভাপতি মোঃ শামসুল আলম তালুকদার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস্টার নুরুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন দঃ রাজানগর সেক্রেটারি মোঃ জামাল উদ্দিন, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মীর্জা খোরশেদ আলম ও ইউপি সদস্য মোঃ ইলিয়াস কাঞ্চন প্রমূখ। অনুষ্ঠানে গণহত্যা ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শামসুল আলম তালুকদার।



সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্য মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন তালুকদার বলেন, ‘আজ ভয়াল ২৫ মার্চ, বাঙালি জাতি তথা মানবসভ্যতার ইতিহাসে এক কালিমালিপ্ত বেদনাবিধুর রাত। ১৯৭১ সালের এদিনে বাঙালির জীবনে এক বিভীষিকাময় রাত নেমে এসেছিল।



বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী এ রাতে বাঙালীর ওপর নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালায়। ২৫ মার্চের গণহত্যা শুধু এক রাতের হত্যাকান্ডই ছিলনা, এটা ছিল মূলত বিশ্ব সভ্যতার জন্য এক কলংকজনক জঘন্যতম গণহত্যার সূচনা মাত্র।’ তিনি আরও বলেন, ‘হানাদার বাহিনী ২৫ মার্চ রাত থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ঢাকা ও তার আশপাশের এলাকায় প্রায় ৩০ হাজার বাঙালিকে নির্বিচারে হত্যা করা হয়েছে।



২৬ মার্চের প্রথম প্রহরেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ঐতিহাসিক ঘোষণা দেন। ঘোষণার পরই হানাদার বাহিনী বাঙালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধুকে ধানমন্ডির বাসা থেকে গ্রেফতার করে।



কিন্তু বঙ্গবন্ধুর ডাকে সেদিন স্বাধীনতালাভে দেশের সর্বত্র সশস্ত্র সংগ্রাম ও যুদ্ধ শুরু করে বাঙালির অকুতোভয় বীর মুক্তিযোদ্ধা। দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র লড়াই শেষে একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর পূর্ণ বিজয় অর্জন করে।



বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশের।’ অনুষ্ঠান শেষে শহীদদের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আ র ম রবিউল আলম। পরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী  ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ২০২১ এর দেয়ালিকা পত্রিকা উদ্বোধন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ