1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন

কাগজপত্র ঠিক থাকলে শাকিবের নায়িকা নিয়ে লুকোচুরি কেন?

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৫ মার্চ, ২০২১
  • ১০৮ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক : একজন সিনেমার শুটিং করে চলে গেছেন গতকাল। আরেকজন শুটিং করছেন পাবনা সদরের রত্নদীপ রিসোর্টে।। তারা হলেন কলকাতার উঠতি দুই নায়িকা রূপসা মুখার্জি ও দর্শনা বণিক। রূপসা কাজ করেছেন শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘গ্যাংস্টার’ সিনেমায়।



অন্যদিকে দর্শনা নায়িকা হয়েছেন শাকিব খানের বিপরীতে ‘অন্তরাত্মা’ ছবিতে। সম্প্রতি এই দুই নায়িকার বাংলাদেশে আসা নিয়ে চলছে বিতর্ক। বেশ কিছু গণমাধ্যম প্রশ্ন তুলেছে দুই তরুণ অভিনেত্রীর বাংলাদেশে এসে পেশাদার কাজের বৈধতা নিয়ে। তারা কি ট্যুরিস্ট ভিসায় এসে কাজ করছেন নাকি ওয়ার্ক পারমিট নিয়েই বৈধ উপায়ে এদেশে কাজ করে পারিশ্রমিক নিয়ে যাচ্ছেন? উত্তর খুঁজতে গিয়ে জানা গেল বর্তমানে করোনার কারণে ট্যুরিস্ট ভিসা বন্ধ রয়েছে।



তাই এই ভিসায় এসে ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে কাজ করে অর্থ উপার্জনের সুযোগ নেই বিদেশিদের জন্য। সম্ভাবনা হতে পারে মেডিকেল ভিসাসহ জরুরি ভিত্তিতে অন্য কোনো উপায়। সে অনুসন্ধান করতে গিয়ে রূপসা মুখার্জির ব্যাপারে শাপলা মিডিয়ার ঘনিষ্ট সূত্র থেকে নিশ্চিত হওয়া গেল, সঠিক নিয়ম মেনেই ‘কে তুমি নন্দিনী’খ্যাত কলকাতার এই নায়িকাকে বাংলাদেশে নিয়ে আসা হয়েছে। তিনি ২৭ ফেব্রুয়ারি এসেছিলেন। কক্সবাজারে ‘গ্যাংস্টার’ ছবির শুটিং করে ফিরে গেছেন ১৩ মার্চ।



তবে জল ঘোলা দেখা গেল ‘অন্তরাত্মা’ সিনেমার নায়িকা দর্শনা বণিকের বেলায়। বেশ গোপনেই নায়িকা নিয়ে শুটিং করছিলেন ছবির পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন। কাল ১৩ মার্চ পর্যন্ত তিনি দাবি করেছেন গণমাধ্যমে, তার ছবির নায়িকা দর্শনা এখনো বাংলাদেশে আসেননি। অথচ তিনি কয়েকদিন আগেই কলকাতা থেকে এসেছেন এবং শুটিং করছেন। বিষয়টি গতকাল গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়। শুধু তাই নয়, স্থানীয় অনেক দর্শকের তোলা ছবি-ভিডিওতেও একসঙ্গে দেখা গেছে শাকিব খান ও দর্শনাকে।



তবে আজ রোববার (১৪ মার্চ) পরিচালক সুমন নায়িকার বাংলাদেশে এসে কাজ করার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। নায়িকার ওয়ার্ক পারমিটের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এসব বিষয় দেখার চেয়ে আপনাদের মন দেয়া উচিত দেশে সিনেমা হচ্ছে কি না। কি ধরনের সিনেমা হচ্ছে। সেটি মানসম্পন্ন হচ্ছে কি না। কোন বিদেশি আর্টিস্ট কীভাবে কাজ করে গেল সেটা দেখা কি খুব জরুরি? আগেও তো অনেকে ওয়ার্ক পারমিট ছাড়া কাজ করেছে। ওয়ার্ক পারমিট না থাকলেও কাজ হচ্ছে না?’ প্রশ্নের পিঠে তাকে প্রশ্ন করা হয়, ‘সিনেমার দোহাই দিয়ে অবৈধ উপায়ে রাষ্ট্রের অনুমতি ছাড়া বিদেশিদের নিয়ে কাজ করাটা কি ঠিক?’ উত্তরে ‘রক্ত’ সিনেমার পরিচালক সুমন বলেন, ‘অবশ্যই ঠিক না।



এখন তো ট্যুরিস্ট ভিসা বন্ধ। তাই যারা বলছেন যে নায়িকা ট্যুরিস্ট ভিসায় এসেছেন তারা ঠিক বলছেন না। কি ভিসায় এসেছে কি কাগজপত্র তার সবই এফডিসি কর্তৃপক্ষের কাছে গেলে জানতে পারবেন। সবার কাছে এখন সহযোগিতা চাই সিনেমার ব্যাপারে। একটি ভালো গল্প নিয়ে কাজ করছি। সিনেমাটি যেন শেষ করতে পারি।’ নায়িকা দর্শনা বণিকের সঙ্গেও কাল থেকে এ ব্যাপারে কয়েক দফায় যোগাযোগ করেও কোনো উত্তর মেলেনি।



হোয়াটস অ্যাপে তার কাছে ওয়ার্ক পারমিটের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি ছিলেন নিরুত্তর। তার কিসের ভয় বা গণমাধ্যমে কথা বলতে আপত্তি তা রহস্যময় হয়ে উঠেছে। এদিকে কিছু সূত্র নিশ্চিত করেছে, দর্শনা বাংলাদেশে এসেছেন মেডিক্যাল ভিসায়। তার এখানে এসে পেশাদার কোনো কাজের অনুমতি নেই। তিনি সরাসরি মুম্বাই থেকে ভিসা নিয়ে ২৯ দিনের জন্য এ যাত্রায় বাংলাদেশে এসেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ