1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৪:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু, আশীর্বাদ চাইলেন শ্রাবন্তী হাট-বাজারের দরপত্র দাখিলে অনিয়ম, রাতেও সিডিউল বিক্রির অভিযোগ আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গরু ও গাড়িসহ দুই চোর গ্রেফতার আশাশুনিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয় নিয়ে গ্রাম পুলিশদের সাথে জরুরী আলোচনা শার্শায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পল্লীসমাজের উঠান বৈঠক পাইকগাছা পৌরসভার নতুন ওয়াটার রির্জারভার এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলেন ইউএনও খালিদ হোসেন অপ্রচলিত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানিতে প্যাকেজিং বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধী আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা দিলেন ইউএনও খালিদ হোসেন

নরসিংদীতে সরকারি নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে চলছে কেজি স্কুলে পাঠদান

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৯৩ বার পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি: বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব সংক্রমণের কারণে সারা দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হলেও নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার বেসিক আইডিয়াল একাডেমী, শ্রীনিধী, রায়পুরা, নরসিংদী নামক এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ এই এলাকার আরো অনেক বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি বিধিনিষেধ না মেনে এসব কিন্ডারগার্টেন বিদ্যালয়গুলোতে চালিয়ে যাচ্ছে পাঠদান।



আর এ স্কুলের শিশু শিক্ষার্থীদের সকাল ৭টা হতে ৯টা পর্যন্ত ক্লাস করানো হচ্ছে। শীতের বার্তার সঙ্গে সঙ্গে দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ একটু আতঙ্কিত রেখেছে সবাইকে। তাই সরকার এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রেখেছে। তার মধ্যেই রায়পুরার উপজেলার এই বেসিক আইডিয়াল একাডেমী স্কুলটি সরকারী নির্দেশনা না মেনেই অবাধে ক্লাস চালাচ্ছে।  এদিকে আজ ১৬ ই ফেব্রুয়ারি রোজ মঙ্গলবার সংবাদ কর্মী রুদ্র এই স্কুলে গেলে উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরা অভিযোগ করে বলেন, কিছু দিন আগে এই স্কুলের কর্তৃপক্ষরা ভর্তির জন্য মাইকিং করাকালীন সময়ে স্কুল খোলার নির্দেশনা দেন। এই কারণে আমরা বাচ্চাদেরকে নিয়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানে সরকারী নিষেধ থাকা সত্ত্বেও ক্লাস করানোর জন্য নিয়ে আসছি। কিন্তু আমাদের মতে এটা বেআইনী। এ বিষয়ে আমরা অভিভাবকগন জানতে চাইলে স্কুল কর্তৃপক্ষ বলেন, রায়পুরা উপজেলার শিক্ষা অফিসারের মৌখিক নির্দেশনায় আমরা স্কুল খোলা রেখেছি।



কিন্ডারগার্টেন বিদ্যালয়ের পরিচালকরা জানান, শিশু শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষা অর্জন থেকে বঞ্চিত হওয়ার কারণেই আমরা বর্তমানে ক্লাস এবং কোচিং চালু রেখেছি। এখানে স্কুলে পাঠদান দেয়ার মতো দীর্ঘ সময় নিয়ে কোনো ক্লাস নেয়া হচ্ছে না।  অন্যদিকে এই কিন্ডার গার্টেনে একটি ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে। গণমাধ্যম কর্মীর উপস্থিতি টের পেয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এক সময় পালিয়ে যান। এছাড়া অধিকাংশ শিশু শিক্ষার্থীর মুখে মাস্ক ছিল না।



অপরদিকে আজ ১৬ ই ফেব্রুয়ারি রোজ মঙ্গলবার ২.১৯ ঘটিকার সময় উক্ত স্কুলের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা সাইফুজ্জামান সময় বার্তাকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এই বিষয়টি ধামাচাপা দিতে এবং এই বিষয়ে কোন সংবাদ প্রকাশ না করার অনুরোধ করেন। তাছাড়া গণমাধ্যমকর্মীকে তিনি এ সময় একান্তে কথা বলার প্রস্তাব দেন। এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বর্তমানে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ এর ব্যতিক্রম ঘটালে সঠিক তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ