1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু, আশীর্বাদ চাইলেন শ্রাবন্তী হাট-বাজারের দরপত্র দাখিলে অনিয়ম, রাতেও সিডিউল বিক্রির অভিযোগ আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গরু ও গাড়িসহ দুই চোর গ্রেফতার আশাশুনিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয় নিয়ে গ্রাম পুলিশদের সাথে জরুরী আলোচনা শার্শায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পল্লীসমাজের উঠান বৈঠক পাইকগাছা পৌরসভার নতুন ওয়াটার রির্জারভার এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলেন ইউএনও খালিদ হোসেন অপ্রচলিত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানিতে প্যাকেজিং বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধী আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা দিলেন ইউএনও খালিদ হোসেন

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে দরপত্রে অনিয়মের অভিযোগ

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৯২ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে এমএসআর সরবরাহের দরপত্রে অনিয়মের অভিযোগ ওঠেছে। সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কয়েকজন ঠিকাদার টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু মিয়নায়তনে সংবাদ সম্মেলনে ওই অভিযোগ করেন। সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে অভিযোগ করা হয়, টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চলতি বছরে এমএসআর সরবরাহের জন্য সম্প্রতি দরপত্র আহবান করা হয়। নিয়মতান্ত্রিকভাবে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স শামছুল হক ফামের্সী, মেসার্স লোটাস সার্জিক্যাল, মেসার্স প্রন্তিক এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স সাইদ ম্যাডিক্যাল, মেসার্স দীনা ফার্মেসীর নামে সিডিউল কিনে দরপত্রের শর্তাবলি মেনে ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর সিডিউল দাখিল করে। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দুর্নীতির মাধ্যমে সর্বনিম্ন দরদাতাদের ‘দরপ্রস্তাব’ মূল্যায়ন না করে অনিয়মের মাধ্যমে উচ্চ দরদাতাদের দরপ্রস্তাব বিবেচনায় নিয়ে চূড়ান্তভাবে ঠিকাদার নিয়োগের জন্য প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো হয়েছে। এতে সরকারের কোটি টাকার উপরে নিশ্চিত লোকসানের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এ খবর জানতে পেরে তারা অনিয়মের বিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, তারা(ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান) এমএসআর দরপত্রের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য জানতে তথ অধিকার আইনে আবেদন করলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আবেদন গ্রহন করা হয়নি। ডাকযোগে অভিযোগপত্র পাঠালেও তা ফিরিয়ে দেওয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে মেসার্স শামছুল হক ফার্মেসীর স্বত্ত্বাধিকারী মো. আমিনুর রহমান শাহীন, মেসার্স সাইদ মেডিক্যাল হলের মো. আবু সাইদ চৌধুরী ও মেসার্স প্রান্তিক এন্টারপ্রাইজের পরিচালক আব্দুল্লাহ আলম মাসুদ সহ বিভিন্ন প্রিণ্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ