1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোটচাঁদপুর মডেল থানার উদ্যোগে নানা আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭মার্চ পালন তালা থানা পুলিশের উদ্যোগে ৭মার্চ উপলক্ষ্যে আনন্দ উদযাপন তালা বাজার মডেল সরকারি প্রাথ: বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটি গঠন দেবহাটায় নানা আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত তথ্য অধিকার আইন ব্যবহারের জন্য ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত টাঙ্গাইলে ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ দিবস পালিত পাইকগাছার একাধিক মামলার আসামী হালিম শিকারী আটক শেখ হাসিনা যাকে নৌকা দিবে তার পক্ষে সবাইকে কাজ করতে হবে :এমপি বাবু পাইকগাছায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস পালিত বঙ্গবন্ধুর এক ভাষণেই দেশের মানুষ স্বাধীনতার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল : এমপি রবি

৩৮ হাজার মানুষের কাটা নাকের সমাধি

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪২ বার পড়া হয়েছে

ফিচার ডেস্ক : জাপানের কিয়োটো শহরের নিরিবিলি আবাসিক এলাকার মাঝে আছে একটি সমাধি। ঘাসে আচ্ছাদিত ৩০ ফুট উঁচু টিলা সদৃশ এ সমাধি তৈরি করা হয় ১৬ শতকের শেষের দিকে। এর নাম ‘মুমুজিকা টিলা’। কোরিয়া-জাপানের যুদ্ধের সময় কোরিয়ান প্রায় ৩৮ হাজার নারী-পুরুষ ও শিশুর নাক কেটে নেয় জাপানিরা। এরপর ওই নাকগুলো পাঠানো হয় জাপানে। এরপর একসঙ্গে ৩৮ হাজার কাটা নাকের সমাধি দেওয়া হয় জাপানের কিয়োটো শহরে।

noses-(3).jpg

টয়োটোমি হিদায়িশির নেতৃত্বে জাপান ১৫৯২ সালে কোরিয়ান উপদ্বীপ এবং চীন দখলের উদ্দেশ্যে কোরিয়া আক্রমণ করেছিল। যা তখন মিং রাজবংশের অধীনে ছিল। জাপানি বাহিনী কোরিয়ান উপদ্বীপ দখল করতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সফল হয়েছিল। তবে তারা চীন দখল করতে ব্যর্থ হয়। এর কয়েক বছর পর ১৫৯৭ সালে মিং এবং কোরিয়ার জোসোনের সম্মিলিত বাহিনীর একটি শক্ত প্রতিরক্ষা দল জাপানকে দক্ষিণ উপদ্বীপে যেতে বাধ্য করে। সেখানেই দুই বিরোধী সেনাবাহিনীর মধ্যে টানা ১০ মাস যুদ্ধ হয়। ১৫৯৮ সালে টয়োটোমি হিদায়িশির আকস্মিক মৃত্যুর পর এ শত্রুতার অবসান ঘটে। তবে ১০ মাস যুদ্ধ চলাকালীন জাপানিরা অনেক কোরিয়ান ও চীনা নাগরিকের মাথা কেটে লবণ মাখিয়ে প্যাকেট করে জাপানে পাঠাতে থাকে। সেখানে জাপানি সামরিক বাহিনী গণনা করত, তারা ঠিক কতজনকে হত্যা করেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে জাপানি সৈনিকদের পুরস্কৃতও করা হয়েছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ