1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু, আশীর্বাদ চাইলেন শ্রাবন্তী হাট-বাজারের দরপত্র দাখিলে অনিয়ম, রাতেও সিডিউল বিক্রির অভিযোগ আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গরু ও গাড়িসহ দুই চোর গ্রেফতার আশাশুনিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয় নিয়ে গ্রাম পুলিশদের সাথে জরুরী আলোচনা শার্শায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পল্লীসমাজের উঠান বৈঠক পাইকগাছা পৌরসভার নতুন ওয়াটার রির্জারভার এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলেন ইউএনও খালিদ হোসেন অপ্রচলিত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানিতে প্যাকেজিং বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধী আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা দিলেন ইউএনও খালিদ হোসেন

মিসরের জেল থেকে আল জাজিরার সাংবাদিকের মুক্তি

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫৩ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চার বছর পর কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরার সাংবাদিক মাহুমদ হুসেইনকে মুক্তি দিয়েছে মিসর। শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) কোনো অভিযোগ গঠন বা আনুষ্ঠানিক বিচার ছাড়াই মিসরের বাসিন্দা সাংবাদিক মাহমুদকে মুক্তি দেয়া হয়েছে বলে আল জাজিরা জানিয়েছে। তার মেয়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ২০১৬ সালের কাতার থেকে মিসরে ফেরার পর মাহমুদকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে ভুয়া সংবাদ প্রকাশ ও বিদেশি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণ করে দেশের সুনাম ক্ষুণ্নের অভিযোগ আনে মিসরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো আনুষ্ঠানিক অভিযোগ গঠন করেনি মিসর সরকার। এছাড়া মাহুমদ এবং আল জাজিরা বারবার তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছে। শনিবার তার মুক্তির পর আল জাজিরা নেটওয়ার্কের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক মোস্তফা সোয়াগ এক বিবৃতিতে বলেন, ‌‘মাহমুদের মুক্তি সত্যের এক মুহূর্ত এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য একটি মাইলফলক।’ তিনি বলেন, ‘মাহমুদের মুক্তিকে আমরা স্বাগত জানাই। আমরা বিশ্বাস করি, গত চার বছর মাহুমদের সঙ্গে যা হয়েছে এই পরিণতি আর কোনো সাংবাদিককে ভোগ করতে হবে না।’ আরবি ভাষার সংবাদ মাধ্যম কাজের দীর্ঘ দিনের অভিজ্ঞতা রয়েছে নয় সন্তানের জনক মাহুমদ হুসেইনের। আল জাজরিা অ্যারাবিকে বেশ কয়েক বছর ফ্রিল্যান্স্যার হিসেবে কাজ করার পর ২০১০ সালে পূর্ণ মেয়াদে যোগদান করেন। প্রথমে তিনি মিসরের কায়রোতে যোগদান করেন। এরপর কাজ করেন কাতারের দোহায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ