1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দের সংবর্ধনা সাতক্ষীরার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত মমতাজ আহমেদ এঁর কর্মময় জীবনের উপর আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান সাতক্ষীরায় ৩১তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস ও ২৪তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা সাতক্ষীরা জেলা ইমাম পরিষদের উদ্যোগে ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত দেবহাটায় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত পারুলিয়া ইউপি কাপ ফাইনালে পিডিকে মিতালী সংঘকে হারিয়ে মাহমুদপুরের জয় পাইকগাছায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত কাথন্ডা আমিনিয়া আলিম মাদ্রাসার নতুন সভাপতি প্রকৌশলী শেখ তহিদুর রহমান ডাবলুকে শুভেচ্ছা পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী প্যানেলের জয়লাভ : সভাপতি – পঙ্কজ, সম্পাদক – তৈয়ব এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ

গভীর নলকূপ বসানো নিয়ে সাইফুল ইসলামের সংবাদ সম্মেলন

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬৫০ বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্ট : সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কাথন্ডা গ্রামে গভীর নলক‚প বসানো নিয়ে ওই গ্রামের মৃত খোদ বক্সের ছেলে মোঃ সিরাজুল ইসলামের সংবাদ সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন একই গ্রামের মৃত সামছুর দফাদারের ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই প্রতিবাদ জানান। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমাদের পরিবার আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। সে কারনে আমাদের প্রতিপক্ষ বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের সাথে হাত মিলিয়ে আমাদেরকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে। গভীর নলকূপ বসানো সংক্রান্ত বিষয়ে সিরাজুল ইসলাম গত ৬ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে আমাদের দুই ভাই ও এলাকার কয়েকজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মিথ্যেচার করেছেন। তার বক্তব্য সম্পূর্ণ, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য এলাকার একজন জনপ্রতিধি আমাদের বিরুদ্ধে সিরাজুল ইসলামকে দিয়ে এই মিথ্যে সংবাদ সম্মেলন করিয়েছেন। সিরাজুল ইসলাম জামায়াত ও হেফাজাতে ইসলামের নেতা। কাথন্ডায় মৃত সহিদুল ইসলামের নামে যে নলকূপটি আছে তিনি এলাকার চিহ্নিত স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াতে ইসলামীর নেতাদের সাথে সম্পৃক্ত ও বৈকারী বিএনপির সভাপতি ছিলেন। তার ভাই সিরাজুল ইসলাম ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারকে প্রতিহত করতে বৈকারি ইউনিয়নের কাথন্ডা এলাকায় ‘আওয়ামী লীগ সরকার পতন’ মে র নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সাইফুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন যাবত আমরা এলাকায় স্যালো মেশিন বসিয়ে নিজেদের জমিতে পানি সরবরাহ করে ধান চাষ করে আসছি। এক পর্যায়ে ওই চিহ্নিত গোষ্ঠিটি প্রতি বছর বোরিং ম্যাশিনের পাইপের মধ্যে গাছ ঢুকিয়ে দিয়ে আমাদের স্যালো মেশিন ক্ষতিগ্রস্ত করে আসছে। এজন্য আমরা এলাকার ৪০ জন কৃষক একজোট হয়ে একটি নলকূপ বসিয়ে নিজেদের জমিতে পানি সরবরাহ করে ধান চাষ তথা কৃষিকাজ করার লক্ষ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-শিবির নেতারা এবং দূর্বৃত্ত গোষ্ঠিটি আমাদের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এসব ঘটনায় আমরা সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি। তিনি অভিযোগ করে বলেন, সিরাজুল ইসলামের অভিযোকৃত নলকূপটির সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা রয়েছে। তারপরও সিরাজুল ইসলাম সামাজিকভাবে আমাদের হেয় প্রতিপন্ন করে মানসম্মান ক্ষুন্ন এবং রাজনৈতিক ও ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য এক জনপ্রতিনিধির সাথে হাত মিলিয়ে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি সরেজমিনে ঘটনাস্থলে যেয়ে প্রকৃত ঘটনা তদন্ত র্পবূক ব্যবস্থা গ্রহণে বিএডিসি ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ