1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দের সংবর্ধনা সাতক্ষীরার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত মমতাজ আহমেদ এঁর কর্মময় জীবনের উপর আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান সাতক্ষীরায় ৩১তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস ও ২৪তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা সাতক্ষীরা জেলা ইমাম পরিষদের উদ্যোগে ইমাম সম্মেলন অনুষ্ঠিত দেবহাটায় প্রতিবন্ধী দিবস পালিত পারুলিয়া ইউপি কাপ ফাইনালে পিডিকে মিতালী সংঘকে হারিয়ে মাহমুদপুরের জয় পাইকগাছায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত কাথন্ডা আমিনিয়া আলিম মাদ্রাসার নতুন সভাপতি প্রকৌশলী শেখ তহিদুর রহমান ডাবলুকে শুভেচ্ছা পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী প্যানেলের জয়লাভ : সভাপতি – পঙ্কজ, সম্পাদক – তৈয়ব এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ

যুক্তরাষ্ট্রে আবারও গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর, ভারতের তীব্র ক্ষোভ

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৫১ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে আবারও মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর করা হয়েছে। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সম্প্রতি ক্যালিফোর্নিয়ার ডেভিস শহরের সেন্ট্রাল পার্কে স্থাপিত ২৯৪ গ্রাম ওজনের ৬ ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট ব্রোঞ্জের ভাস্কর্যটি ভেঙে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ক্ষোভ জানিয়ে সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে ভারত। ২০১৬ সালে এই ভাস্কর্যটি ভারত সরকারের পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে পাঠানো হয়েছিল ডেভিস শহরে। স্থানীয় সিটি কাউন্সিল চার বছর আগে এটি সেন্ট্রাল পার্কে স্থাপনের ব্যবস্থা করে। সেই সময়ে ভারতবিরোধী সংগঠন ‘অর্গানাইজেশন ফর মাইনোরিটিস ইন ইন্ডিয়া’ (ওএফএমআই) এর ব্যাপক বিরোধিতা করে। যদিও সেই বিরোধকে কোনোভাবে আমলে নেয়নি স্থানীয় প্রশাসন। তারপর থেকেই ওএফএমআই ভাস্কর্যটি সরানোর দাবিতে অনড় ছিল।পুলিশের বরাতে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গত বুধবার (২৭ জানুয়ারি) ভোরে সেন্ট্রাল পার্কের এক কর্মী প্রথমে মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্যটি মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেন। গোড়ালি থেকে শুরু করে এর মুখের এক অংশও ভেঙে ফেলা হয়েছে। স্থানীয় পুলিশের উপ প্রধান পল দরোশভ বলেছেন, ‘মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্যটি ডেভিসের একটি অংশের মানুষের সাংস্কৃতিক আদর্শ। আমরা ঘটনাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করছি।’ ডেভিস সিটির কাউন্সিলম্যান লুকাস ফ্রেরিকস স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ভাঙা ভাস্কর্যটি নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে। কখন এবং কী উদ্দেশ্যে এই ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, ডেভিস শহরের স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি সান ফ্রান্সিসকোয় ভারতীয় কনস্যুলেট জেনারেলও এই ঘটনার তদন্ত করবে। ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন স্থানীয় ইন্দো-আমেরিকান সম্প্রদায়। বিদ্বেষের জেরেই এই হামলা চালানো হয়েছে বলে মনে করছেন তারা। শনিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গত ২৮ জানুয়ারি ক্যালিফোর্নিয়ার ডেভিস শহরের সেন্ট্রাল পার্কে মহাত্মা গান্ধীর ভাস্কর্য ভাঙচুর করে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতিরা। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে ভারত।’পাশাপাশি, বিষয়টি মার্কিন স্বরাষ্ট্র দফতরের গোচরে এনে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত এবং দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির জন্য আবেদন জানিয়েছে ওয়াশিংটনের ভারতীয় দূতাবাস। ডেভিসের মেয়র বলছেন, এটি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। দোষীদের বিরুদ্ধে যত দ্রুত সম্ভব আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর আগে গত ডিসেম্বরেও ওয়াশিংটন ডিসির ভারতীয় দূতাবাসের সামনে স্থাপিত মহাত্মা গান্ধীর একটি ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ