1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু, আশীর্বাদ চাইলেন শ্রাবন্তী হাট-বাজারের দরপত্র দাখিলে অনিয়ম, রাতেও সিডিউল বিক্রির অভিযোগ আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গরু ও গাড়িসহ দুই চোর গ্রেফতার আশাশুনিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয় নিয়ে গ্রাম পুলিশদের সাথে জরুরী আলোচনা শার্শায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পল্লীসমাজের উঠান বৈঠক পাইকগাছা পৌরসভার নতুন ওয়াটার রির্জারভার এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলেন ইউএনও খালিদ হোসেন অপ্রচলিত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানিতে প্যাকেজিং বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধী আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা দিলেন ইউএনও খালিদ হোসেন

চট্টগ্রামের নতুন মেয়র হলেন রেজাউল করিম

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬৯ বার পড়া হয়েছে
এম. মতিন, চট্টগ্রাম : বহুপ্রতীক্ষিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে (চসিক) বিএনপির প্রার্থী ডা.শাহাদাত হোসেনকে ৩ লাখেরও বেশি ভোটে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ রেজাউল করিম চৌধুরী।  বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দিবাগত রাত পৌনে ১টা ৩৪ মিনিটে রেজাউল করিমকে মেয়র পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।
নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে স্থাপিত নির্বাচন কমিশনের অস্থায়ী নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে ফল ঘোষণা করা হয়। প্রাপ্ত ফলাফলে রেজাউল করিম চৌধুরী  পেয়েছেন ৩,৬৯,২৪৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন পেয়েছেন ৫২,৪৮৯ ভোট। রিটার্নিং কর্মকর্তা জানান, চট্টগ্রাম সিটির ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন ভোটারের মধ্যে নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন ৪ লাখ ৩৬ হাজার ৫৪৩ জন। বৈধ ভোটের সংখ্যা ৪ লাখ ৩৫ হাজার ৪৯০। বাতিল হয়েছে ১ হাজার ৫৩ ভোট। ভোটের শতকরা হার ২২ দশমিক ৫২ শতাংশ। নির্বাচনের মোট ৭৩৫টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত থাকা দু’টি কেন্দ্র বাদে ৭৩৩টি কেন্দ্রের ফলে নৌকা প্রতীকে রেজাউল করিম চৌধুরী পেয়েছেন ৩ লাখ ৬৯ হাজার ২৪৮ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪৮৯ ভোট। দু’জনের ভোটের ব্যবধান ৩ লাখ ১৬ হাজার ৭৫৯।
ফল ঘোষণার সময় জিমনেশমিয়ামে উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত রেজাউল করিম চৌধুরী আসেননি। তার প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী এবং নগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন এসময় উপস্থিত ছিলেন। ফলাফল ঘোষণার পর রাত পৌনে দুইটার দিকে সাংবাদিকরা বিজয়ী মেয়রের প্রতিক্রিয়া নেয়ার জন্য ছুটে যান তার বহদ্দারহাটের বাড়ীতে। কিন্তু তখন বিজয় উল্লাসের পরিবর্তে সেখানে ছিল সুনসান নিরবতা। নব নির্বাচিত মেয়র ছিলেন ঘুমে। সাংবাদিকরা খবর পাঠিয়েও তাকে জাগিয়ে তুলতে পানেরনি। আধা ঘন্টা অপেক্ষার পর এক পর্যায়ে ব্যর্থ মনোরথে মধ্যরাতে সাংবাদিকরা স্থান ত্যাগ করেন।  এর আগে, বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট নেওয়া হয়। চট্টগ্রাম নগরীর ৪১ ওয়ার্ডে মোট ৭৩৫টি ভোটকেন্দ্রে মেয়র পদে নির্বাচন হয়েছে। তবে ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ডে দু’টি কেন্দ্রে সহিংসতার কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত হওয়ায় বাকি ৭৩৩টি কেন্দ্রের ফল ঘোষণা করা হয়েছে। চসিকে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন। তৎমধ্যে পুরুষ ভোটার ৯ লাখ ৯২ হাজার ৩৩ জন এবং নারী ভোটার ৯ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭৩ জন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ