1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আবারো জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু, আশীর্বাদ চাইলেন শ্রাবন্তী হাট-বাজারের দরপত্র দাখিলে অনিয়ম, রাতেও সিডিউল বিক্রির অভিযোগ আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গরু ও গাড়িসহ দুই চোর গ্রেফতার আশাশুনিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয় নিয়ে গ্রাম পুলিশদের সাথে জরুরী আলোচনা শার্শায় সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পল্লীসমাজের উঠান বৈঠক পাইকগাছা পৌরসভার নতুন ওয়াটার রির্জারভার এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলেন ইউএনও খালিদ হোসেন অপ্রচলিত কৃষি পণ্য উৎপাদন ও রপ্তানিতে প্যাকেজিং বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধী আল-আমিনকে আর্থিক সহায়তা দিলেন ইউএনও খালিদ হোসেন

পাইকগাছায় প্রতিপক্ষের মিথ্যা মামলায় হয়রানী হচ্ছে শিক্ষক পরিবার

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩৪৬ বার পড়া হয়েছে

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছার আমান উল্লাহ সরদার নামে এক ব্যক্তি মিথ্যা মামলা ও অভিযোগ দিয়ে এক শিক্ষক পরিবারকে হয়রানী করছে। জায়গা-জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে শিক্ষক পরিবারের একাধিক সদস্যকে জড়িয়ে আদালতে মিথ্যা মামলা এবং বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়ে নানাভাবে হয়রানি করছে প্রতিপক্ষ ওই ব্যক্তি। হয়রানী থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা শিক্ষক পরিবারের বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছেলে-মেয়েরাও। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষক পরিবার।
প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে, উপজেলার কালুয়া গ্রামের মৃত সিরাজ উদ্দীন সরদারের ছেলে আবুল কাশেম পেশায় একজন মাদ্রাসা শিক্ষক। সামান্য বেতন ভাতায় যেখানে সংসার চালানো দায় সেখানে শিক্ষক আবুল কাশেম তার ৬টি ছেলে মেয়েকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়ার খরচ জোগাতে গিয়ে বসবাসের জন্য কোন বাড়ী কিংবা জায়গা কিনতে পারেন নি। অনেক কষ্টের মধ্যে ১৯/১২/২০১৮ সালে ৩৩১১/১৮ নং দানপত্র দলিল মূলে কমলাপুর মৌজায় বিআরএস ৮২৩/৮২৪ নং খতিয়ানে বিআরএস ৩৯৭ দাগে ১.৮৮ একর সম্পত্তির মধ্য থেকে আব্দুল হাকিম মোল্লা গংদের নিকট থেকে বসতবাড়ী নির্মাণ পূর্বক বসবাসের জন্য ০.২৫ একর জমি প্রাপ্ত হন শিক্ষক আবুল কাশেম। বর্তমানে নালিশী সম্পত্তিতে বসতঘর নির্মাণ করে শান্তিপূর্ণ অবস্থান করছে আবুল কাশেম ও তার পরিবার। এদিকে প্রতিপক্ষ হাড়িয়ার ডাঙ্গা গ্রামের মৃত আফসার সরদারের ছেলে আমান উল্লাহ সরদার খোকন নালিশী জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে শিক্ষক পরিবারকে নানাভাবে হয়রানী করছে। আমান উল্লাহ এ পর্যন্ত নির্বাহী আদালত ও থানা পুলিশ সহ বিভিন্ন দপ্তরে শিক্ষক পরিবারকে জড়িয়ে একাধিক অভিযোগ করেছে। কিন্তু বেশিরভাগ অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় আবারও নতুন ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। যার অংশ হিসেবে গত ১৯ জানুয়ারী শিক্ষক আবুল কাশেম সহ পরিবারের ৬ জনকে আসামী করে সিনিয়ির জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেছে। যার নং সিআর-৬৮/২০২১। মামলায় চুরি, ছিনতাই সহ নানাবিধ অভিযোগ আনা হয়েছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবী করেছেন শিক্ষক আবুল কাশেম ও তার পরিবার। শিক্ষক আবুল কাশেম বলেন, আমার ছেলে-মেয়েরা দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করে। সর্বশেষ মামলায় চুরি, ছিনতাই যে সব অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এতে আমাদের পরিবারের মান-সম্মান ক্ষুন্ন হচ্ছে। বর্তমানে আমার ছেলে মেহেদী হাসান খুলনা প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেয়ে মুক্তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত রয়েছে। তার গত প্রায় ১ মাস খুলনা ও ঢাকাতে অবস্থান করছে। এ মামলায় তাদেরকেও আসামী করা হয়েছে। আমান উল্লাহ এ ধরণের মিথ্যা মামলা ও অভিযোগ দিয়ে আমার পরিবারকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। আমি এ ধরণের হয়রানী থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ