1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাথন্ডা আমিনিয়া আলিম মাদ্রাসার নতুন সভাপতি প্রকৌশলী শেখ তহিদুর রহমান ডাবলুকে শুভেচ্ছা পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী প্যানেলের জয়লাভ : সভাপতি – পঙ্কজ, সম্পাদক – তৈয়ব এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ সাতক্ষীরায় কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি রবি সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধু আন্তঃ বিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন সাজেক্রীস নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মীর তানজির আহমেদ’র আহবানে মিলন মেলা কোরাইশী ফুড পার্কের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন পাইকগাছা পৌরসভা বিএনপি’র সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় ৪৪তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং দুই-দিন ব্যাপী বিজ্ঞান মেলা এমপি বাবুর সাথে জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলামের শুভেচ্ছা বিনিময়

অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে নেতার মামলা

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৮৩ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক : টালিগঞ্জের আলোচিত নায়িকা সায়নি ঘোষের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকেছেন ত্রিপুরা ও মেঘালয়ের সাবেক রাজ্যপাল তথাগত রায়। হিন্দুধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।২০১৫ সালে অভিনেত্রীর টুইটার থেকে পোস্ট করা একটি ছবিকে কেন্দ্র করে এই গোল বেঁধেছে।শিবলিঙ্গে জন্মনিরোধ পরানোর গ্রাফিক্স করা হয়েছিল তাতে। পোস্টের ক্যাপশনে ছিল, ‘এর থেকে বেশি কার্যকরী হতে পারেন না ঈশ্বর’।ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপির নেতা তথাগত রায়ের অভিযোগ, হিন্দু ধর্মের পবিত্রতাকে নষ্ট করছেন সায়নি। তাই ১৬ জানুয়ারি কলকাতার রবীন্দ্র সরোবর থানায় অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে  মামলা করেছেন তিনি।অভিযোগপত্রে তথাগত লেখেন, ‘আমি শিবের ভক্ত। ১৯৯৬ সালে শিবের পূজা দেওয়ার জন্য পায়ে হেঁটে কৈলাস-মানস সরোবর যাত্রা করেছিলাম। অভিনেত্রী সায়নি ঘোষের এই ছবিটি দেখে আমার ধর্মীয় ভাবাবেগ আহত হয়েছে। আমার আবেদন, আপনারা এই বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করুন তার বিরুদ্ধে।’এদিকে, অভিযোগটি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন সায়নি।তার দাবি, ২০১৫ সালে তার অ্যাকাউন্টটি হ্যাকড হয়েছিল। তখনই এই কাণ্ডটি ঘটে। অ্যাকাউন্ট উদ্ধার করার পর তিনি সেই ছবিটি সরিয়েও ফেলেছিলেন।সায়নির ভাষায়, ‘২০১৫ সালের টুইটটির বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম। যেই মুহূর্তে সেটিকে আমার নজরে আনা হয়, আমি সেটার তীব্র নিন্দা করে সবাইকে জানিয়ে ডিলিট করেছি। তবে আজকের এই বিষয়টাকে কেন্দ্র করে যে বিদ্বেষের সম্মুখীন আমাকে হতে হয়েছে, তা দুঃখজনক।’বিষয়টি নিয়ে গত ১৫ জানুয়ারি থেকে টুইটারে নতুন করে বাগযুদ্ধ শুরু হয়। এতে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য করেন তথাগত রায় ও সায়নি ঘোষ। তার আগের দিন একটি বাংলা টিভি চ্যানেলে অতিথি বক্তা হিসেব উপস্থিত হয়েছিলেন সায়নি। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘যেভাবে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগানটিকে রণধ্বনিতে পরিণত করা হয়েছে, তা অত্যন্ত ভুল। উপরন্তু, এটি বাঙালি সংস্কৃতির মধ্যেও পড়ে না। ঈশ্বরের নাম ভালোবেসে বলা উচিত।’’এরপরই ধর্ম নিয়ে পুরনো টুইটটির স্ক্রিনশট সামনে আসে।
সূত্র: টুইটার, আনন্দবাজার

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ