1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:৪৯ অপরাহ্ন

মসজিদের কমিটি গঠন নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২০৩ বার পড়া হয়েছে

কালিগঞ্জ প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে মসজিদের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে সভাপতি ও সেক্রেটারি পক্ষের লোকদের মধ্যে সংঘর্ষে নজরুল ইসলাম পাড় (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হন অন্তত পাঁচ জন। শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) জুমার নামাজের পর উপজেলার নলতা ইউনিয়নের পশ্চিম পাইকাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও মাদ্রাসা শিক্ষক তাজমিনুর রহমান, স্থানীয় বাসিন্দা ইব্রাহিম হোসেন, পিয়ার আলী জানান, গত ৪ জানুয়ারি মুসুল্লিদের উপস্থিতিতে দক্ষিণ কাশিবাটি জামের মসজিদে ভোটের মাধ্যমে কাশিবাটি গ্রামের ফজলুর রহমানকে সভাপতি ও পশ্চিম পাইকাড়া গ্রামের মাহবুবুর রহমানকে সেক্রেটারি নির্বাচিত করা হয়। শুক্রবার জুমার নামাজের পর কমিটির অন্যান্য সদস্য নির্বাচনের লক্ষ্যে আলোচনা শুরু হয়। বিগত কমিটির সদস্য আব্দুর রউফ সরদার, আনছার সরদার ও খায়রুল আলম বাপীকে নতুন কমিটিতে নেওয়ার জন্য নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুর রহমান প্রস্তাব দেন। তবে বিষয়টি নিয়ে দ্বিমত পোষণ করেন সেক্রেটারি মাহবুবুর রহমান। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাক-বিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে মসজিদের বাইরে এসে সভাপতি ও সেক্রেটারি পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় সেক্রেটারির পিতা পশ্চিম পাইকাড়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম পাড় ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরণ করেন। সংঘর্ষে আহত হন সভাপতি গ্রুপের লোক হিসেবে পরিচিত কাশিবাটি গ্রামের মৃত নওশের আলীর ছেলে শাহাজান (৫৫), মৃত নাজের আলীর ছেলে রুস্তম আলী (৫০) ও তার সহোদর আবু সাঈদ (৪০) এবং সেক্রেটারি গ্রুপের পাইকাড়া গ্রামের ইমান আলী মোড়লের ছেলে আবুল কালাম (৩২) ও তার সহোদর আল আমিন (২৫)। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরবর্তীতে নজরুল ইসলাম পাড়ের মৃত্যুর বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় সভাপতির গ্রুপের আহত তিন ব্যক্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পালিয়ে যায়। তবে সংঘর্ষে নয়, ছেলের পক্ষের লোকজনের সঙ্গে মারামারির দৃশ্য দেখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নজরুল ইসলাম পাড়ের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছেন সভাপতির পক্ষের লোকজন। কালিগঞ্জ থানার ওসি দেলওয়ার হোসেন জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। শনিবার সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে এটি হত্যা নাকি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ