1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন

কোভিড-১৯ মহামারীর আওতায় অর্থনৈতিক অসুবিধা নিরসনে বস্তিবাসীদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৭৯ বার পড়া হয়েছে

মাসুদ আলী : সাতক্ষীরার নির্বাচিত বস্তিতে চারমাসের জন্য ৩ হাজারের বেশি পরিবার মোবাইল নগদ স্থানান্তরের মাধ্যমে নিঃশর্ত মাল্টিপারপাস ক্যাশ গ্রান্টস (এমপিসিজি) প্রদান শুরু হয়েছে। নগদ অনুদানের মাসিক কিস্তি দুঃস্থ ব্যক্তিদের প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বাংলাদেশের কোভিড-১৯ মহামারীর অর্থনৈতিক প্রভাব মোকাবেলায় চ্যালেঞ্জগুলি যুক্ত হওয়ার পরিস্থিতিতে তাদের জীবিকা নির্বাহে সহায়তা করবে। সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বস্তিবাসী যেমন নারী, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি, জলবায়ু অভিবাসী এবং অন্যান্য সুবিধাবঞ্চিত ব্যক্তিদের নগদ অনুদানের জন্য অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। স্বচ্ছ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে উপকারভোগীদের চিহ্নিত করা হয়েছিল। এতে সুবিধাভোগী কমিউনিটির নির্বাচিত প্রতিনিধিরা অংশ নেন। আর্থিক সহযোগীতা (এমপিজি) প্রদানের সাথে সংক্রমনের ঝুঁকি কমাতে এবং করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত ব্যক্তিদের সাথে কীভাবে আচরণ করা যায় সে সম্পর্কে সচেতনতামূলক তথ্য প্রচারণার মাধ্যমে হাতে হাতে তথ্য প্রদান করা হয়। এটি সাতক্ষীরার নির্বাচিত বস্তি অঞ্চলে ৫ হাজার পরিবারের মাঝে পৌছে যাবে। উভয় কার্যক্রম আরবান মেনেজমেন্ট অব মাইগ্রেশন এন্ড লাইভলিহুড (ইউএমএমএল)/ আরবান মেনেজমেন্ট অব ইন্টারনাল মাইগ্রেশন ডিউ টু ক্লাইমেট চেঞ্জ (ইউএমআইএমসিসি) প্রকল্পের দ্বারা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এই মাল্টি ডেনার অ্যাকশনটি ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইউ) এবং জার্মান ফেডারেল মিনিষ্ট্রি ফর ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট এন্ড কো-অপারেশন (বিএমজেড) এর যৌথ অর্থায়নে এবং বাংলাদেশ রেসিলেইয়েন্ট এন্ড লাইভলিউড প্রোগ্রাম এর আওতায় জিআইজেড কর্তৃক বাস্তবায়িত হচ্ছে। সাতক্ষীরা ছাড়াও রাজশাহী, খুলনা এবং সিরাজগঞ্জের দুঃস্থ দরিদ্ররাও নি:শর্ত মাল্টিপারপাস ক্যাশ গ্রান্টস (এমপিসিজি) এবং তথ্য প্রচার থেকে লাভবান হবে। চারটি শহরে তথ্য প্রচারের মাধ্যমে মোট সুবিধাবঞ্চিত ৭ হাজার ৫শ টিরও বেশি পরিবার এমপিসিজি এবং ২০ হাজার পরিবার তথ্য প্রচারের আওতায় আসবে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায় এককভাবে ১ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করছে এবং বিএমজেড ৫ লক্ষ ইউরো প্রদান করছে। ইউএমএমএল/ ইউএমআইএমসিসি প্রকল্পের মোট বাজেটের পরিমাণ ১৬.৫ মিলিয়ন ইউরো। এর লক্ষ্য জলবায়ু অভিবাসী এবং অন্যান্য ঝুঁকিপূর্ণ শহুরে দরিদ্রদের জীবিকা উন্নয়ন করা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ