1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কাথন্ডা আমিনিয়া আলিম মাদ্রাসার নতুন সভাপতি প্রকৌশলী শেখ তহিদুর রহমান ডাবলুকে শুভেচ্ছা পাইকগাছা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী প্যানেলের জয়লাভ : সভাপতি – পঙ্কজ, সম্পাদক – তৈয়ব এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ সাতক্ষীরায় কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এমপি রবি সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধু আন্তঃ বিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন সাজেক্রীস নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মীর তানজির আহমেদ’র আহবানে মিলন মেলা কোরাইশী ফুড পার্কের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন পাইকগাছা পৌরসভা বিএনপি’র সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় ৪৪তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং দুই-দিন ব্যাপী বিজ্ঞান মেলা এমপি বাবুর সাথে জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলামের শুভেচ্ছা বিনিময়

শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধারা

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

গলাচিপা প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর গলাচিপায় শীতের প্রকোপ যত বাড়ছে শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন শিশু ও বৃদ্ধরা। এ কারনে শীত জনিত নিউমোনিয়া, ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগ প্রতিরোধে সর্তক থাকার প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তাদের আশংকা শৈত্যপ্রবাহ বাড়লেই বাড়বে ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট সহ শীত জনিত রোগ। ঠান্ডার কারনেই হাসপাতালে শীত জনিত ডায়রিয়া আক্রান্ত ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এদের বেশীর ভাগই শিশু। ঠান্ডার কারনে বেশিরভাগই শিশু ও বৃদ্ধরা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। শনিবার গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মো. মনিরুল ইসলাম জানান, এ বছরে শীত জনিত রোগে শিশুরা ও বৃদ্ধারা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তাদেরকে হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে বাড়িতে পাঠানো হচ্ছে। রোগী কহিনুর বেগম (৬৫) জানান, আমি এই শীতে শ^াসকষ্টে ভুগছিলাম হাসপাতালে এসে ভর্তি হলে এখন সুস্থ্য, কাল চলে যাব। এক শিশু রোগীর মা জান্নাতুল বেগম জানান, আমার ৫ মাসের একটি পূত্র সন্তান ঠান্ডা জনিত কারনে নিউমনিয়া হয়েছিল। হাসপাতালে ৪ দিন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হলে কাল চলে যাব। এ ব্যাপারে অন্যান্য চিকিৎসকরা বলেন, গত এক মাসে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঠান্ডা জনিত কারনে ৬০ জন শিশু ও ২৫ জন বৃদ্ধ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। দূষিত পানি, দ‚ষিত খাবার এবং পরিবেশের কারনে বিভিন্ন বয়সের শিশু ও বৃদ্ধ সহ সমস্ত মানুষই কম বেশী আক্রান্ত হচ্ছে। সেজন্য সব সময় হাত পরিষ্কার রাখা, টয়েলেট ব্যবহারের পর সাবান দিয়ে হাত-পা ধোয়া ও ছোট শিশুদের শুধু মায়ের বুকের দুধ পান করাতে হবে, ডায়রিয়া হলে ওরস্যালাইন খাওয়ানো। সর্তকতা হিসেবে আমরা এই মেসেজগুলো দেই। চিকিৎসকরা আরও বলেন, শৈত্যপ্রবাহ বাড়লে শীত জনিত রোগে বৃদ্ধ ও শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুকি রয়েছে। এ অবস্থায় রোগীদের সর্তক থাকা প্রয়োজন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ