1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সুইডেনের আদলে ২০০ কি.মি. বৈদ্যুতিক সড়ক বানাচ্ছে ভারত শিগগির বিয়ে করতে যাচ্ছেন সিদ্ধার্থ-কিয়ারা! ই-কমার্স বন্ধ না করে প্রতারণা ঠেকাতে আইন করার তাগিদ ৪ মন্ত্রীর নরসিংদী পলাশে এক নারীর স্বর্ণ চুরি করতে গিয়ে ৭ নারী গ্রেফতার নলতায় জলাবদ্ধতা নিরসনে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করলেন তুফান গড়ইখালীর নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম কেরু’র নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় কুলিয়ায় কয়েক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে আছাদুল হকের মোটর শোভাযাত্রা দেবহাটার ওসি-সেকেন্ড অফিসারকে বদলী, ভারপ্রাপ্ত ওসি ফরিদ আহমেদ খলিশাখালি সহস্রাধিক বিঘা জমি দখলের ঘটনায় সরেজমিনে মামলার তদন্তে পিবিআই সাতক্ষীরায় তথ্য অধিকারের ওপর সচেতনতামূলক প্রচারণা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

নরসিংদী জেলার বিভিন্ন এলাকায় রস সংগ্রহে নেমে পড়েছেন গাছিরা

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১২৫ বার পড়া হয়েছে

নরসিংদী প্রতিনিধি : প্রতিদিন সকালে গাছিদের খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করতে দেখা যায়। বর্তমানে এই পেশার ওপর অনেকে নির্ভরশীল। তবে পূর্বের তুলনায় খেজুর গাছের সংখ্যা কমে যাওয়ায়, ঐতিহ্য দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে। এক সময় জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রচুর খেজুর গাছ ছিল। গাছ থেকে রস সংগ্রহ করতে হলে প্রথমে গাছের মাথার অংশ পরিষ্কার করতে হয়। পরে বিশেষ কায়দায় অল্প কেটে সাদা অংশ থেকে ছোট-বড় মাটির কলসি বেঁধে রস সংগ্রহ করা হয়। গাছিরা প্রতিদিন বিকেলে গাছে কলসি বাঁধেন। সকালে রস নামিয়ে কেউ কেউ বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় করেন। আবার কেউ কেউ গুড় তৈরি করেন। রস দিয়ে হয় মুখরোচক পায়েস ও পিঠা। শিবপুর উপজেলা পুটিয়া ইউনিয়নের জামতলা গ্রামের গাছি করম আলী সাংবাদিকদের বলেন, আমি ২০-২৫ বছর ধরে খেজুরের রস সংগ্রহ করে আসছি। এবার ১২-১৫টি গাছের দায়িত্ব নিয়েছি। তিনি আরও বলেন, সাধারণত একটি খেজুর গাছ রসের উপযোগী হতে ৫-১০ বছর সময় লাগে। রস পাওয়া যায় ২৫ বছর পর্যন্ত। প্রতিটি গাছ থেকে কী পরিমাণ রস পাওয়া যাবে, তা নির্ভর করে গাছির দক্ষতার ওপর। গাছিরা জানান, প্রতিটি গাছ থেকে দৈনিক তিন-চার কেজি রস সংগ্রহ করা যায়। কাচা রস প্রতি কেজি ৬০-৭০ টাকা দরে বিক্রি হয়। খেজুরের রসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ খনিজ। রস টিনের ডিঙিতে ঢেলে বড় চুলায় জ্বাল দিয়ে তৈরি করা হয় পাটালি গুড়। ভাপা পিঠা জনপ্রিয় রসের পিঠা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ