1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৫:৩৩ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর প্রতি কৃষকের অন্যরকম ভালোবাসা

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৩২ বার পড়া হয়েছে

ন্যাশনাল ডেস্ক : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি ভালোবাসা ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী স্মরণীয় করে রাখতে ফসলের মাঠে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলেছেন এক কৃষক। শুধু তাই নয়; ফসলের মাঝে আরও ফুটিয়ে তুলেছেন স্মৃতিসৌধ, নৌকা, শাপলা। এঁকেছেন মুজিবশতবর্ষও। অন্যরকম সৌন্দর্যময় এই ফসলের মাঠ দেখতে প্রতিদিন ভিড় করছে মানুষ। আলোচিত এই কৃষকের নাম আবদুল কাদির। তিনি ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার পাড়া খালবলা গ্রামের তারা মিয়ার ছেলে। সম্প্রতি মুজিববর্ষ উপলক্ষে লালশাক ও সরিষা খেতের মধ্যে এই প্রতিকৃতি আঁকার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে আশপাশের এলাকা থেকে দেখতে মানুষের ভিড় জমছে।

গত ১ ডিসেম্বর নিজের ৩৩ শতক জমিতে পাড়া খালবলা বন্ধুমহল ক্লাবের সদস্যদের নিয়ে আবদুল কাদির জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি, স্মৃতিসৌধ, নৌকা, জাতীয় ফুল শাপলার এক অনন্য শিল্পকর্ম তৈরি করেছেন। যতই দিন যাচ্ছে, চারা বড় হওয়ার সঙ্গে চিত্রটিও আরও ফুটে উঠছে। এ বিষয়ে কৃষক আবদুল কাদির বলেন, ‘কোনো কিছু পাওয়ার জন্য না, আমি শুধু বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে ফসলের মাঠে তার প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলেছি। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে সরকারি-বেসরকারিভাবে অনেকে অনেক কিছু করে তার প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শন করছেন। আমি বঙ্গবন্ধুর ক্ষুদ্র প্রেমিক হিসেবে ফসলের মাঠে তাকে ফুটিয়ে তুলে নিজেকে ধন্য মনে করছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘বছরের অন্য সময় জমি চাষ করে আর্থিক লাভবান হই। এ সময়টায় জাতির পিতার চেতনা সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে ভিন্ন কিছু করেছি। এটি করে আর্থিক লাভ না হলেও মানসিক তৃপ্তি রয়েছে।’ সরকারের কাছে আপনার কিছু চাওয়া আছে কি-না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সরকারের কাছে আমার কিছু চাওয়া নেই। তবে, সরকার যেন দেশের কৃষকদের প্রতি সুদৃষ্টি দেন।’

বন্ধুমহল পাড়া খালবালা ডিজিটাল ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নাইমুল ইসলাম বলেন, ‘আবদুল কাদির পেশায় কৃষক। তিনি ক্লাবের উপদেষ্টাও। তিনি একজন সৃজনশীল মানুষ, বিভিন্ন সময় সবজির খেতে শিল্পকর্ম ফুটিয়ে তোলেন। এ বছর তার মাধ্যমে সবজিখেতে জাতির পিতার প্রতিকৃতি ফুটিয়ে তুলেছেন ক্লাবের তরুণেরা। এটি মুজিববর্ষে জাতির পিতার প্রতি তাদের শ্রদ্ধা প্রদর্শন।’ ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাধন কুমার গুহ মজুমদার বলেন, ‘কৃষক আবদুল কাদির বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা ও সৌন্দর্যের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন ফসলের মাঠে। তিনি আর্থিক লাভবান না হলেও দূর-দূরান্ত থেকে লোকজনের শৈল্পিক কাজটি দেখতে আসার মধ্যে তৃপ্তি পাচ্ছেন।’ এ বিষয়ে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘ফসলের মাঠে কৃষক আবদুল কাদির জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি এঁকেছেন। তবে এটি শুধু তার শিল্পকর্ম নয়; একটি অনন্য সৃষ্টি।’ কৃষক আবদুল কাদিরকে নিয়ে কোনো পরিকল্পনা রয়েছে কি-না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, সামনের বছরে বঙ্গবন্ধু কৃষি পদকের জন্য আবেদন করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ