1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবহাটার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসারের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা বিনিময় সাতক্ষীরা পৌর আ.লীগ ৪নং ওয়ার্ড শাখার ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল ২০২১ অনুষ্ঠিত জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানে দেবহাটায় মানববন্ধন এমপি বাবু’র সাথে নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানদের শুভেচ্ছা বিনিময় পাইকগাছার ব্যবসায়ী বিধান এর এক সপ্তাহেও খোঁজ মেলেনি ১৫ দফা দাবিতে চট্টগ্রাম বন্দরে চলছে ধর্মঘট সাতক্ষীরায় ১০ ইউপিতে নৌকা, ১১টিতে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী পাইকগাছা পৌরসভা এসডিজি ফোরামের সভা অনুষ্ঠিত পাইকগাছার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন পাইকগাছার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ, সার ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান

পাইকগাছায় ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসা সুপার আটক

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১২৮ বার পড়া হয়েছে

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় এক মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে। পুলিশ মাদ্রাসা সুপার হাবিবুর রহমানকে আটক করেছে। আটক হাবিবুর লস্কর-পাইকগাছা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার ও কয়রা উপজেলার খিরোল গ্রামের আব্দুল হাকিম সরদারের ছেলে। ভিকটিম একই মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী ও ভিলেজ পাইকগাছা গ্রামের জনৈক ব্যক্তির নাতনী।
মামলা সূত্রে জানাগেছে, পিতার মৃত্যুর কারণে ভিকটিম তার মায়ের সাথে গত ৯ মাস ভিলেজ পাইকগাছা গ্রামে নানার বাড়ীতে বসবাস করে আসছে। তার মা এবং নানা তাকে একই এলাকার লস্কর-পাইকগাছা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণিতে ভর্তি করে দেয়। তার মা বর্তমানে ইট-ভাটায় কর্মরত রয়েছে। করোনার কারণে মাদ্রাসা বন্ধ থাকলেও প্রতি রবিবার মাদ্রাসা সুপার ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা নেয়। গত ৩০ নভেম্বর সোমবার ভোরে মাদ্রাসা সুপার ছাত্রীর বাড়ীতে এসে তাকে মাদ্রাসায় যাওয়ার কথা বলে। সে অনুযায়ী ভিকটিম ছাত্রী মাদ্রাসায় গেলে অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়ীতে পাঠিয়ে দিয়ে মাদ্রাসার শয়নকক্ষে ফেলে ভিকটিম ছাত্রীকে মাদ্রাসা সুপার জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। সকাল ৮টার দিকে মাদ্রাসা থেকে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ীতে আসলে তাকে জিজ্ঞাসা করলে মাদ্রাসা সুপার তাকে ধর্ষণ করেছে বলে জানাই। এ ঘটনায় ভিকটিমের নানা বাদী হয়ে থানায় মাদ্রাসা সুপারকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা করে। যার নং- ০২, তাং- ০২/১২/২০২০ ইং। ওসি এজাজ শফী জানান, এ ঘটনায় মাদ্রাসা সুপার হাবিবুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। ওসি (তদন্ত) আশরাফুল আলম জানান, আটক সুপারকে আদালতে এবং ভিকটিম ছাত্রীকে উদ্ধার করে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ