1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

সন্ত্রাসীদের নেতৃত্বে ম্পত্তি জবর দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০
  • ৮৩ বার পড়া হয়েছে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : শ্যামনগরের চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাংলার ভাগ্নে সাইফুল্লাহর নেতৃত্বে কোবলাকৃত সম্পত্তি জবর দখলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করছেন শ্যামনগরের বাদঘাটা গ্রামের আলহাজ্ব আব্দুল গফুর গাজীর ছেলে আলহাজ্ব মো: আলমগীর হোসেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন শ্যামনগরের সৈয়দালীপুর মৌজায় জে এল নং-৪৫, বি এস খতিয়ান নং- ৩২ ও ১৬৪, বি এস দা নং- ১৪৬, ১৪৯, ১৫০ এর মধ্যে ২৯.৮২ একর সম্পত্তি আমার কোবলা কৃত সম্পত্তি। বর্তমান জরিপে আমার নামে গেজেট প্রকাশিত এবং রেকর্ডীয় উক্ত সম্পত্তিতে আমি দীর্ঘদিন মৎস্য ঘের পরিচালনা করে আসছিলাম। সম্প্রতি শ্যামনগর উপজেলার গোলাম মোস্তফা বাংলা’র ভাগ্নে একাধিক মামলার আসামী সাইফুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে মানিকপুর গ্রামের আকবর হোসেনের পুত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন, বাংলার ভাইয়ের পুত্র জাহিদ হোসেন, ওবায়দুল্লাহ, আজিবর রহমানের পুত্র আল মাহমুদ, সামছুর গাজীর পুত্র ইউনুস আলী, নওশের আলীর পুত্র রফিকুল ইসলাম, এন্তাজ আলীর পুত্র মোহাম্মাদ আলী, ভবানীপুর গ্রামের নকিম উদ্দীনের পুত্র আবু ইছাক, মৃত. অছির উদ্দীন গাজির পুত্র আপ্তাব গাজী, আবু বক্কর গাজীর পুত্র আবুজার সহ অজ্ঞাতনামা প্রায় অর্ধশত সন্ত্রাসী বাহিনী অস্ত্রে সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গত ১৭/১১/২০২০ তারিখে আমার মৎস্য ঘেরে প্রবেশ করে ঘেরের কর্মচারী আকবর হোসেন, অজিয়ার রহমান, হাবিবুল্লাহ ও আজিয়ার রহমানকে মারপিট করে মারাত্মক জখম করে জোরপূর্বক ঘের দখলের চেষ্টা করে এবং মাছ ধরে নেয়। এঘটনায় থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাদের বিতাড়িত করা হয়। পরে আমি শ্যামনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও সেটি রেকর্ড করা হয়নি।
তিনি আরো বলেন গত ১৯ নভেম্বর‘২০ তারিখে সাইফল্লাহর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমার মৎস্য ঘেরে প্রবেশ করে ঘেরের মাছ ধরে নেওয়া সহ ঘেরের বাসা, সোলার প্যানেল, ক্যাশ বাক্স ভাংচুরসহ প্রায় ২লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করে। অথচ ঐ সম্পত্তি সাইফুল্লাহ গংয়ের কোন স্বত্ব না থাকলেও লোভ ও লাভের বশবর্তী হয়ে দখল করে নিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এর মধ্যে সাইফুল্লাহ’র বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানার মামলা নং- ৩০(৬),১৭, ০১(০৩)১৮, ১০(০১)১৮, ১১(০৩)১৭, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও ওবায়দুল্লাহ ১০(০১)১৮, ০১(০৩)১৮, ইউনুস আলী ০১(০৩)১৮ ও ১০ (০১)১৮ ও মোহাম্মাদ আলী ৩০(৬)১৭, ১০(০১)১৮ নং মামলার এজাহার নামীয় আসামী। আমি ওই সন্ত্রাসী বাহিনীর কবল থেকে আমার রেকর্ডীয় সম্পত্তি উদ্ধার পূর্বক জবর দখলকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ