1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

প্রদ্বীপের আলোয় প্রজ্বলিত হলো কপিলমুনির কাশিমনগর মহাশ্মশান

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ৯৪ বার পড়া হয়েছে

প্রবীর জয়, কপিলমুনি প্রতিনিধি : শতশত দর্শনার্থী ও নরনারীর উপস্থিতিতে দিপাবলীকে কেন্দ্র করে প্রদ্বীপের আলোয় আলোকিত হয়েছে কপিলমুনি কাশিমনগর মহাশ্মশান। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী দিপাবলী উৎসব উপলক্ষ্যে প্রয়াত প্রিয়জনদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে দ্বীপ জ্বেলে নানা উপাচারের মধ্যে দিয়ে দিনটি পালিত হচ্ছে। পরিবারের ছোট-বড় সবাই এসেছিলেন তাদের প্রিয়জনকে সাথে নিয়ে এ অনুষ্ঠান স্থলে। বাদ যাননি বৃদ্ধ, মধ্য বয়সী যুবক, যুবতী ও শিশুরা। শুক্রবার দিপাবলী সূচনার সন্ধ্যা থেকে শনিবার সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে মোমের আলোয় আলোকিত হয়েছিল পুরো কপিলমুনি এলাকা। দিপাবলী সম্পর্কে ঠাকুর দেবপ্রসাদ আচার্য্য জানান, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস কালি পূজার আগের দিন ভূত চতুর্দশী তিথিতে পূজা অর্চনা করলে মৃত ব্যক্তির আত্মা শান্তি লাভ করে। তাই স্বজনহারা ব্যক্তিরা প্রদীপ জ্বেলে সৃষ্টিকর্তার কাছে হারানো স্বজনদের জন্য স্বর্গীয় সুখের প্রার্থনা করেন।
শুক্রবার বিকাল ৪ টার পর থেকে লগ্ন অনুযায়ী শুরু হয়ে শনিবার কালিপূজার মধ্য দিয়ে এ উৎসবের সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে। দিপাবলীকে ঘিরে কাশিমনগর মহাশ্মশানের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক, আসন্ন কপিলমুনি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আনন্দ মোহন বিশ্বাস ও নবগঠিত শ্মশান কমিটির সভাপতি কার্ত্তিক চন্দ্র সাধু জানান, করোনার প্রকোপ ঠেকাতে এবার সংক্ষিপ্ত পরিসরে আয়োজন করা হয়েছে শ্মশান দিপাবলীর। কাশিমনগর শ্মশান দিপাবলীতে আগত দর্শনার্থীদের মাস্ক ব্যবহারের জন্য প্রচার উল্লেখ্যযোগ্য। শ্মশানে প্রবেশ গেটে জীবানুনাশক দুটি টানেল বসানো হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য সার্বক্ষণিক মাইকিং করার ব্যবস্থা রয়েছে। নিরাপত্তার জন্য স্থাপন করা হয়েছে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। এদিকে দিপাবলীকে কেন্দ্র করে কাশিমনগর শ্মশানসহ আশপাশ এলাকা জুড়ে সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়ে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ এজাজ শফী বলেন, দিপাবলী উৎসব নির্বিঘ্নে এবং শান্তিপূর্ন করতে সব বাহিনীর সন্ময়ে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। পোষাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকধারী পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা উৎসবকালীন সময়ে সার্বক্ষনিক মহাশ্মশানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ