1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভারতে ১০০ কোটি মানুষকে টিকা : মোদিকে হাসিনার অভিনন্দন পরীমণি: স্কুলের মেধাবী ছাত্রী থেকে আলোচিত নায়িকা ক্যাচ মিস আর বেহিসেবি বোলিংয়ে হার দেবহাটায় চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইক ছিনতাই, গ্রেফতার-৩ জেলা প্রশাসকের সাথে সাতক্ষীরা সাইবার-ক্রাইম অ্যালার্ট টিমের সৌজন্য সাক্ষাৎ বাংলাদেশ অবসর প্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি সাতক্ষীরা জেলা শাখার নির্বাহী কমিটির সভা ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপপরিচালকের সাথে জেলা নাগরিক অধিকার ও উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির মতবিনিময় টাঙ্গাইল সদর উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত শার্শায় নৌকার মনোনয়ন জেরে হামলা: ইউপি সদস্যসহ আহত ২০ আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী জনসভা

শিশু ধর্ষন মামলার আসামীর স্বজন কর্র্তৃক মামলা তুলে নিতে খুন জখমের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৭৬ বার পড়া হয়েছে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : অসহায় পরিবারের শিশু কন্যা ধর্ষন মামলার আসামীর স্বজন কর্র্তৃক মামলা তুলে নিতে বাদীকে খুন জখমের হুমকি-ধামকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন আশাশুনি উপজেলার মিত্রতেতুলিয়া গ্রামের হরমুজ গাজীর স্ত্রী ফিরোজা খাতুন।
লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, আমরা অত্যান্ত অসহায় নিরিহ ও গরিব খেটে খাওয়া মানুষ। আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি এলাকার মৃত. শাহ গোলাম ইদ্রিসের পুত্র ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী ২টি ধর্ষনসহ একাধিক মামলার আসামী মিজানুর রহমান মন্টু আমার শিশু কন্যা (১০) কে গত ১২/০৯/২০২০ তারিখে কৌশলে ডেকে নিয়ে মৃত. ইয়াকুব আলীর স্ত্রী আমিরন ওরফে আম্বিয়া খাতুনের ছাগল ঘরের মধ্যে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। আমার ভাগ্নি নাবালিকা কন্যাকে না পেয়ে খোজাখুজি করতে থাকে। একপর্যায়ে উক্ত স্থানে গিয়ে আমার কন্যাকে ধর্ষন করা অবস্থায় দেখতে পায়। পরে মন্টু বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য আমার কন্যা এবং ভাগ্নিকে হুমকি প্রদর্শন করে। পরবর্তীতে কন্যার যৌনাঙ্গে ব্যথা অনুভব হলে আমার জা নাজমা খাতুন কে বিষয়টি বলে। এঘটনা অবগত হওয়ার পর আমি বাদী হয়ে মন্টুর বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করি যার নং- ১১, তাং- ১৪/০৯/২০২০। উক্ত মামলায় থানা পুলিশ প্রায় ১ মাস ২০ দিন পর মন্টুকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করে। ধর্ষক বর্তমানে কারাগারে থাকলেও তার স্বজনরা উক্ত মামলা তুলে নিতে আমাকে, আমার পরিবারের সদস্যদের এবং মামলার স্বাক্ষীদের খুন জখমসহ মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।
একদিকে আমার শিশু কন্যার জীবনটা নষ্ট করে দিয়েছে। অন্যদিকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন হুমকি ধামকি। মন্টু ইতোপূর্বে একই এলাকার এক গৃহবধূকে ধর্ষন করায় প্রায় ৯মাস জেল হাজত খেটে জামিনে মুক্তি পায়। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে গরু চুরি, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী, মারপিট, অস্ত্র ও অপহরণ মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। বর্তমানে আমরা জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভ‚গছি।
তনি একজন অসহায় মাতা হিসেবে শিশুকন্যাকে ধর্ষন মামলার আসামীর দৃষ্টান্ত শাস্তি এবং তার স্বজন কর্তৃৃক হুমকি ধামকির প্রতিকারের দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ