1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ১২:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বজুড়ে ডেল্টার ঢেউ: বিভিন্ন দেশে রেকর্ড সংক্রমণ প্রশংসা পাচ্ছে অপূর্ব-মেহজাবিনের ‘অন্য এক প্রেম’ কিছু বিদেশি গণমাধ্যম দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে ভুল সংবাদ দেয় আশাশুনিতে সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ সদস্য সাজাপ্রাপ্ত আসামী দেলোয়ার গ্রেপ্তার দেবহাটায় নেট-পাটা অপসারণে ইউএনও’র অভিযান, জরিমানা শার্শায় এক সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ সাতক্ষীরা সামেক হাসপাতালে ইন্টার্ন ডাক্তারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি রবি ভারী বর্ষণে প্লাবিত জনগণের পাশে সোহেল বাল্য বিবাহ; ছেলে, বর-কনের অভিভাবক ও পুরোহিতকে জরিমানা কপিলমুনিতে জনসম্মুখে টানানো হলো ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীদের নামের তালিকা

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা তিনজন উপ-সহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকতাকে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান হয়েছে

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১২ বার পড়া হয়েছে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : মঙ্গলবার (০৩ নভেম্বর) সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসের আয়োজনে সদর উপজেলা প্রানী সম্পদ অফিসার ড. প্রদীপ কুমার মজুদারের সভাপতিত্বে বিদয়ী সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অবসরপ্রাপ্ত উপসহকারী কর্মকর্তা আলহাজ্ব মো. আফছার আলী, আবুল কালাম মোস্তফা ও মো.আবুল বাসারের হাতে উপহার সামগ্রী তুলে দেন। জেলা প্রাণী সম্পদ অফিসার ড. মো. শহিদুল ইসলাম।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন স¤প্রসারণ প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ড. পাভেল হোসেন, ড. মহাসিন বিল্লাহ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলে অবসরপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কর্মকর্তাগনের দীর্ঘ আয়ু কামনা করেন । সাতক্ষীরা সদর উপজেলার উপ-সহকারী প্রাণিসম্পদ অফিসার আলহাজ্ব মোঃ আফছার আলী। সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলায় গত ২৩.১২.১৯৮২ তারিখে প্রানি সম্পদ বিভাগে যোগদানের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। দীর্ঘ আঠারো বছর যাবত ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রানিসম্পদ কর্মকর্তার দায়িত্ব সুনামের সহিত পালন করে আসছিলেন।
১৯৯৯ সালের শেষের দিকে সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় প্রানিসম্পদ বিভাগে বদলী হন তিনি। গত ২৩.০২.২০২০ রবিবার দীর্ঘ ৩৭ বছরের কর্মজীবন শেষ হয় তার।
মোঃ আফছার আলী শ্যামনগর উপজেলার ভেটখালী এ করিম উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৭৭ সালে এস.এস.সি পাশ করেন। কালিগঞ্জ মহাবিদ্যালয় হইতে ১৯৭৯ সালে এইচ.এস.সি পাশ করেন এবং একই কলেজে তিনি বি.এ ভর্তি হন। ১৯৮০ সালে কালিগঞ্জ মহাবিদ্যালয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্যানেলে সাহিত্য সম্পাদক হিসাবে অংশ গ্রহন করেন। সাহিত্য সম্পাদক হিসাবে বিজয় লাভ করার পরে “দিবালোক” নামে একটি পত্রিকা প্রকাশ করেন যা আজও মানুষের মনে আশার আলো সৃষ্টি করে। দীর্ঘ ৩৭ বছর ২ মাস প্রানিসম্পদ বিভাগে সেবা দিয়েছেন। তিনি বর্তমানে শতাধিক গ্রাম্য প্রানিচিকিৎস হাতে কলমে প্রশিক্ষন দিয়েছেন। তারা ও তাদের শ্রদ্ধেয় স্যারের জন্য দোয়া করেন। সমাজের মানুষ ত করে আসছেন। তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী কর্মকান্ডের সাথে জড়িাকে ভালবাসে। শ্রদ্ধা করে সবাই তাকে আফছার ডাক্তার বলে ডাকে। তিনি সাতক্ষীরাতে ডি.আই.পি প্রানি চিকিৎসক হিসাবে পরিচিত। মোজাফ্ফার গার্ডেন ও রির্সোস সেন্টার এর পেট এ্যানিমেল চিকিৎসক হিসাবে বিশ বৎসর যাবৎ পরামর্শ প্রদানত। বর্তমানে তাহার ১ (এক) ছেলে ও ১ (এক) মেয়ে ছেলে ডাঃ মোঃ নাজমুস সাদাত, বি.ডি.এস (ঢাকা), খুলনা ডায়াবেটিক হাসপাতাল খুলনাতে কর্মরত। বৌমা ডাঃ ইসরাত জান্নাত, বি.ডি.এস. ঢাকা, খুলনা ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালে কর্মরত। দাদু ভাই, নাবিদ সাদ (আরিয়ান) বয়স তিন বৎসর। মেয়ে আফসানা মিমি, এম.বি.বি.এস, খুলনা মেডিকেল কলেজ ৫ম বর্ষের ছাত্রী।
সংবদ্ধানা অনুষ্ঠানে উপ-সহকারী অফিসার ডাক্তার আফসার আলী বলেন আপনারা যে সম্মান দিলেন এ জন্য আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ থাকবো । আমি সবসময় চেষ্টা করে যেতাম আপনাদের সেবা দেয়ার জন্য জানিনা কতটুকু পেরেছি তবে চাকরী জীবনের আজ শেষ দিন কিন্তু আমি যতদিন বাঁচবো আপনাদের সেবা দেওয়ার জন্য চেষ্টা করবো। আপনারা সবায় আবার জন্য দোয়া করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ