1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন

কপিলমুনিতে প্রশাসনের কঠোর নজরদারির মধ্যে দিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে শারদীয় দূর্গোৎসব সম্পন্ন

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে
প্রবীর জয়, কপিলমুনি প্রতিনিধি : খুলনা জেলা পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনিতে শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে শারদীয় দূর্গোৎসব। সোমবার বিজয় দশমী শেষে বির্সজনের মধ্যে দিয়ে সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রধান এ ধর্মীয় উৎসব সম্পন্ন হয়েছে। উৎসবকে কেন্দ্র করে স্থানীয় এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, পুজা উদযাপন পরিষদের সদস্য, বিভিন্ন রাজনৈতিক ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠনের হেভিওয়েট নেতারা পৃথকভাবে পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয় ব্যাপক নিরাপত্তা। মন্ডপে মন্ডপে মোতায়েন করা হয় পুলিশ ও আনসার ভিডিপি সদস্য। সূত্রমতে, জেলার গুরত্বপূর্ণ এ উপজেলায় রয়েছে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের লোকের বসবাস। দীর্ঘকাল ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রেখে মুসলমান, হিন্দু ও খ্রীষ্টান ধর্মালম্বীরা শান্তিপূর্ণভাবে নিজ নিজ ধর্মীয় অনুষ্ঠান ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে পালন করে আসছে। বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া ইতোপূর্বে ধর্মীয় উৎসবে বড় ধরণের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। গুরত্বপূর্ণ এ উপজেলায় মোট জনসংখ্যা প্রায় ৩ লাখ, যার মধ্যে সনাতন ধর্মালম্বী রয়েছে ১ লাখ ২০ হাজার এর মত। সনাতন ধর্মালম্বীরা প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও উৎসবমুখর পরিবেশে পালন করেছে প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপুজা। পুজা পরিষদ সূত্রে, এবছর উপজেলায় ১৩৮ টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপুজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২২ অক্টোবর ষষ্ঠী পুজার মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া শারদীয়া উৎসবকে কেন্দ্র করে স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু, খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী, সদ্য নির্বাচিত পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ-সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দ্দারসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের হেভিওয়েট নেতাসহ ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা পৃথক পৃথকভাবে পৌরসদরসহ উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নের পুজা মন্ডপ পরিদর্শন, অনুদান প্রদান ও সনাতন ধর্মালম্বীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। উৎসবকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এদিকে ২২ অক্টোবর শুরু হওয়া শারদীয় দুর্গোৎসব সোমবার বিজয় দশমী শেষে সন্ধ্যায় কপিলমুনি কপিলেশ্বরী কালী ঘাট চত্বরের কপোতাক্ষ নদীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে উপজেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস জানান।  বিসর্জন পর্বে সেখানে উপস্থিত ছিলেন, চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দ্দার, যুগোল কিশোর দে, চম্পক কুমার পাল, ত্রিদিব কান্তি মন্ডল, সাধন চন্দ্র ভদ্র, রামপ্রসাদ পাল, রেজাউল করিম খোকন, ইকবাল হোসেন খোকন, সাংবাদিক প্রবীর জয়, রফিকুল ইসলাম খান, তপন পাল, জগদীশ চন্দ্র দে, বিধান চন্দ্র ভদ্র, হিমাদ্রী শেখর দে, রথীন্দ্রনাথ দত্ত, স্বপন সাহা, কৃষেন্দ্র দত্ত, অলোক মজুমদার, আবুল হোসেন, ইউপি সদস্য ইউনুছ মোড়ল, আজিজ বিশ্বাস, পরিমল কুমার সাধু ও লক্ষণ পাল প্রমুখ। এদিকে শারদীয় উৎসবে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ে, উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ আলতাপ হোসেন মুকুল জানান, পুজামন্ডপ গুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আনসার ভিডিপির ১ জন সিপিও ৯ জন সদস্য সন্ময়ে মোট ১৮ টি ভ্রাম্যমাণ পেট্রোলটিম মাঠে কাজ করেছে। এব্যাপারে পাইকগাছা থানা পুলিশের ইনচার্জ এজাজ শফী জানান, শারদীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে উপজেলা জুড়ে সার্বিক নিরাপত্তায় অন্য অন্য নিরাপত্তা কর্মীদের পাশাপাশি থানা পুলিশ গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ