1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাতক্ষীরা সিটি কলেজ গর্ভণিং বডির নতুন কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত নওয়াপাড়া ইউপি’র নব-নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সংবর্ধনা ও অভিষেক টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে তিন ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত টাঙ্গাইলে ২৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত দেবহাটায় ওয়ান শার্টার গান, ৯ রাউন্ড গুলি ও ৪শ পিছ ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ বেড়েছে, সতর্ক থাকবেন নায়িকা পপি ছেলের মা-ই হয়েছেন! রোটারী ক্লাব অব সাতক্ষীরা’র পক্ষ শিশুদের মাঝে সোয়েটার বিতরণ খুলনা জেলা পরিষদের কর্মকর্তাদের পাইকগাছার উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন অবসর প্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

দেবহাটায় প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের বন্দোবস্তকৃত জমি দখলের পায়তারা, অভিযোগ দায়ের

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৭ মার্চ, ২০২০
  • ২৩৩ বার পড়া হয়েছে

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটায় ভুমিদস্যু কর্তৃক গফুর শিকারী (৬০) নামের এক প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ ও তার স্ত্রীর নামে নিরানব্বই বছরের জন্য বন্দোবস্তকৃত সরকারী জমি দখলের পায়তারার ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ নওয়াপাড়া ইউনিয়নের কালাবাড়ীয় গ্রামের বাসিন্দা মৃত মাওলা বক্স শিকারীর পুত্র গফুর শিকারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীনের অফিসে উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগটি দায়ের করেন। এসময় বৃদ্ধের দায়েরকৃত অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষনিকভাবে অভিযুক্তদের গণশুনানীতে হাজির হওয়ার জন্য নোটিশ করার নির্দেশনা দেন নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন। ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী গফুর শিকারী লিখিত অভিযোগে বলেন, আমি একজন ভুমিহীন বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধী। বর্তমানে আমার জীবিকা নির্বাহের সামর্থ্য নেই। আমার দুই ছেলের মধ্যে একজন ভ্যান চালিয়ে আমি ও আমার স্ত্রী সহ আমাদের পরিবারের ৪ সদস্যের ভরন পোষন করে আসছে। ২০০৯ সালে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কালাচাঁদ সিংহ থাকাকালীন সময়ে আমাদের দুরবস্থার কথা বিবেচনা করে নওয়াপাড়া ইউনিয়নের রামনাথপুর মৌজার, ০১ নং খতিয়ানের ৪৬৪০ দাগের সাবপ্লট ৮৩ এর ১.০০ (এক) একর জমি আমার ও আমার স্ত্রী জেসমিন নাহারের নামে ১১/০৬/২০০৯ ইং তারিখ থেকে আগামী ১০/০৬/২১০৮ ইং সাল পর্যন্ত ৯৯ (নিরানব্বই) বছরের জন্য সরকারী ভাবে বন্দোবস্তের দলিল করে দেন। পরবর্তীতে ক্রমান্বয়ে আমার পাশ্ববর্তী অন্যান্য ভুমিহীনদের মাঝে স্থানীয় সরকারী খাসজমি বন্দোবস্ত প্রদান করা হয়। বন্দোবস্ত প্রাপ্তির পর থেকে আমার জমিটি আমি পরিবার পরিজন নিয়ে ভোগদখল করিয়া আসছি। কিন্তু আমার ওই জমির পাশ্ববর্তী জমির বন্দোবস্ত প্রাপ্ত কালাবাড়ীয়া গ্রামেরনুর হাওলাদারের চার ছেলে আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার, হাসান হাওলাদার, সাহেব আলী হাওলাদার, কাশেম হাওলাদার ও রামনাথপুর গ্রামের শহর আলীর ছেলে শাহাজান দীর্ঘদিন যাবৎ আমাকে উক্ত জমি থেকে বিতাড়িত করে আমাদের নামীয় বন্দোবস্তের জমিটি জবরদখল বা জোরপুর্বক আমাদের ইচ্ছের বিরুদ্ধে ক্রয় করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। উল্লেখিত ব্যাক্তিরা আমার পরিবারকে উক্ত বন্দোবস্তের জমি থেকে বিতাড়িত করার জন্য নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সহ আমাদেরকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হুমকি দিয়ে আসছে। ইতোপুর্বে বন্দোবস্ত প্রাপ্ত আমার পাশ্ববর্তী জমি থেকে মোশারফ হোসেন সরদারের ছেলে রওশন সরদার ও রমজান গাজীর ছেলে আব্দুল মজিদ গাজীর দুটি পরিবারকে একইভাবে ষড়যন্ত্র ও হুমকি দিয়ে তাদের ইচ্ছের বিরুদ্ধে জমি থেকে বিতাড়িত করেছে। এমতাবস্থায় তিনি তার পরিবার নিয়ে একমাত্র সম্বলটুকু হারানোর ভয়ে শঙ্কিত এবং উল্লেখিত ব্যাক্তিদের অব্যাহত হুমকি এবং ষড়যন্ত্রে আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। সেজন্য এসকল ব্যাক্তিদের ষড়যন্ত্র থেকে রেহাই পেতে এবং পরিবার পরিজন নিয়ে শেষ সম্বল বন্দোবস্তের জমিটিতে শান্তিপুর্নভাবে বসবাস ও ভোগদখলের ব্যবস্থা করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে দাবী জানিয়েছেন অসহায় প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের পরিবার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ