1. mirzaromeohridoy@gmail.com : Kazi Sakib : Kazi Sakib
  2. hridoysmedia@gmail.com : news :
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০২:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বজুড়ে ডেল্টার ঢেউ: বিভিন্ন দেশে রেকর্ড সংক্রমণ প্রশংসা পাচ্ছে অপূর্ব-মেহজাবিনের ‘অন্য এক প্রেম’ কিছু বিদেশি গণমাধ্যম দেশ ও সরকারের বিরুদ্ধে ভুল সংবাদ দেয় আশাশুনিতে সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ সদস্য সাজাপ্রাপ্ত আসামী দেলোয়ার গ্রেপ্তার দেবহাটায় নেট-পাটা অপসারণে ইউএনও’র অভিযান, জরিমানা শার্শায় এক সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ সাতক্ষীরা সামেক হাসপাতালে ইন্টার্ন ডাক্তারদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমপি রবি ভারী বর্ষণে প্লাবিত জনগণের পাশে সোহেল বাল্য বিবাহ; ছেলে, বর-কনের অভিভাবক ও পুরোহিতকে জরিমানা কপিলমুনিতে জনসম্মুখে টানানো হলো ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীদের নামের তালিকা

শার্শার বেতনা নদীরপাড় থেকে ৪০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১১২ বার পড়া হয়েছে
রফিকুল ইসলাম, শার্শা (যশোর) : শার্শার বেতনা নদী থেকে অবৈধ দখলকারী উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে এ উচ্ছেদ অভিযান চালায় সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম‍্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী।
মঙ্গলবার সকাল ১১টায় শার্শা উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের বাসাবাড়ি ও ঘোড়পাড়া বাজারে অবৈধভাবে দখলকারী বেতনা নদীর উপর নির্মিতি ৪০টি  স্থাপনার উপর উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। বেতনা নদী অত্র এলাকার সেচ কাজ ও মৎস প্রজননের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম‍্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী জানান, গত ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে বেতনা নদীর অবৈধভাবে দখলকারীদেরকে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও  দখলকারীদের সম্মতিক্রমে ১মাসের সময় দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ২মাস অতিবাহিত হলেও অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়া হয় নাই। কৃষি ও মৎস প্রজনন এবং পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য এই সব নদীর নাব্যতা ও পানি প্রবাহ রক্ষায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। জেলা প্রশাসক মহদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বেতনা নদীর অবৈধ দখলকারীদের ৪০টি অবৈধ  স্থাপনা ভেঙ্গে দেওয়া হয়। অবৈধ দখলকারীদের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের উচ্ছেদ  অভিযান অব্যাহত থাকবে।
অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন উপ- বিভাগীয় প্রকৌশলী, সাইদুর রহমান,  পানি উন্নয়ন বোর্ড, যশোর ও  আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এবং সাংবাদিক ও স্থানীয় লোকজন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ